‘কুকুরের মতো তাড়ানোর হুমকি’, তৃণমূল ব্লক সভাপতির মন্তব্যে তোলপাড়

ফাইল ছবি

বাঁকুড়ার রানিবাঁধ ব্লকের তৃণমূল সভাপতি চিত্তরঞ্জন মাহাতোর বিরুদ্ধে দলের অঞ্চল ও বুথ সভাপতিদের প্রকাশ্যে অশালীন ভাষায় অপমান করার অভিযোগ উঠলো। প্রকাশ্য সভায় দাঁড়িয়ে তিনি দলের অন্যান্য কর্মীদের দল থেকে কুকুরের মতো তাড়ানোর হুমকি দিয়েছেন। দলীয় কর্মীদের প্রতি তার এহেন অশালীন মন্তব্যের জেরে তৃণমূল দলের অভ্যন্তরে এখন জোর তরজা চলছে।

রবিবার ঝিলিমিলিতে দলের একটি কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন চিত্তরঞ্জন মাহাতো। সেখানে প্রকাশ্য সভায় ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, দলে যারা তার সাথে কাজ করবেন না, তাদের তিনি কুকুরের মতো দল থেকে তাড়াবেন। তার এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূলের অন্যান্য কর্মীরা তার প্রতি বেজায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই তার বিরুদ্ধে বিদ্বেষের ঝড় বইছে।

বাঁকুড়া জেলার যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সহ-সভাপতি বিদ্যুৎ দাসের অভিযোগ, প্রকাশ্য সভায় দাঁড়িয়ে তিনি দলের অঞ্চল ও বুথ সভাপতিদের রীতিমতো অপমান করেছেন। তিনি আরো বলেছেন, সদ্যই দলের ব্লক সভাপতির দায়িত্ব নিয়েছেন চিত্তরঞ্জন মাহাতো। এরই মধ্যে দলের দীর্ঘদিনের একনিষ্ঠ কর্মীদের জঘন্য ভাষায় আক্রমণ করলেন তিনি। তার এই অপমানজনক মন্তব্যের প্রতি তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন দলের অন্যান্য কর্মীরা।

উল্লেখ্য, একুশের নির্বাচনকে পাখির চোখ করে তৃণমূলে সাংগঠনিক স্তরে বেশ বড়সড় পরিবর্তন এনেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।দীর্ঘদিনের ব্লক সভাপতি সুনীল মণ্ডলকে সরিয়ে চিত্তরঞ্জন মাহাতোকে রানিবাঁধ ব্লক সভাপতি করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। ফলে, দলের অন্যান্য কর্মীদের মধ্যে অনেকেই তার বিরুদ্ধে মত পোষণ করেন। তবে এ প্রসঙ্গে চিত্তরঞ্জন মাহাতোর বক্তব্য, তিনি আসলে বলতে চেয়েছেন, দলের মধ্যে যারা গুন্ডামি বা তোলাবাজি করবে, তাদের তিনি দল থেকে কুকুরের মত তাড়াবেন। তার বিরুদ্ধে মিথ্যা রটনা করা হচ্ছে।