মেডিক্যালের পর এবার দ্বিতীয় করোনা হাসপাতাল হবে রাজারহাটে, মোকাবিলায় তৎপর বাংলা

প্রতীক ছবি

সারা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্ক। বাড়ছে সংক্রমণ। পশ্চিমবঙ্গে এখনও পর্যন্ত ৯ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তারমধ্যে মারা গিয়েছেন ১ জন। এই পরিস্থিতিতে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজকে করোনা হাসপাতাল করার পর করোনা চিকিৎসার জন্য দ্বিতীয় হাসপাতাল হল রাজারহাটের চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউট। করোনা ভাইরাস মোকাবেলার জন্য সব রাজ্যকে হাসপাতালের ব্যবস্থা করতে পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

এরই মধ্যে মেডিক্যাল কলেজ হয়ে উঠেছে করোনা স্পেশালিটি হাসপাতাল। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের অধীনস্থ রাজারহাটের ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটে বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের কোয়ারান্টাইনে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। এবার স্বাস্থ্যভবন ওই হাসপাতালটিকে পূর্ণমাত্রার একটি হাসপাতালে রূপান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নিল।

রোগীর সংখ্যা হটাৎ করে বেড়ে গেলে যাতে চিকিৎসা করানো সম্ভব হয়, তার জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই ওই হাসপাতালে ৫০ জন ডাক্তার, নার্স এবং স্বাস্থ্য কর্মীদের পাঠানো হয়েছে। মোট ৫০০ টি শয্যা রাখা হচ্ছে। কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের পর এটিই হচ্ছে রাজ্যের এবং পূর্ব ভারতের দ্বিতীয় করোনা চিকিৎসার হাসপাতাল।

রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয় চক্রবর্তী জানান, ওই হাসপাতালে সুপার নিয়োগ করা হয়েছে। তিনি বলেন, হাসপাতালটিকে করোনা হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেজন্য ৩০ জন নার্স, ২ জন টেকনিশিয়ান, চিকিৎসক, ২ জন ডেপুটি নার্সিং সুপার, একজন নার্সিং সুপার, প্রায় ৫০ জন কর্মীকে সেখানে পাঠানো হয়েছে।