এবার ব্রহ্মপুত্রের দিকে কুনজর বেজিংয়ের, তিব্বতে বাঁধ তৈরির পরিকল্পনা চীনের

বিগত এক বছরেরও কিছু বেশি সময় ধরে পূর্ব লাদাখ সীমান্ত নিয়ে ভারত এবং চীনের মধ্যে মনোমালিন্য এখনো জারি রয়েছে। তারই মধ্যে আবার সম্প্রতি তিব্বতে একটি নতুন ড্যাম প্রস্তুত করার পরিকল্পনা নিয়েছে চীনের প্রশাসন। শি জিনপিংয়ের এমন সিদ্ধান্তের কারণে ভারতের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে। কারণ চীন যে বাড়ি তৈরি করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে তাতে ব্রহ্মপুত্র নদের জলের গতি বাধাপ্রাপ্ত হবে।

চীনের এমন সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে তাই ভারত পাল্টা ব্রম্মপুত্রের নিম্ন অববাহিকায় আরেকটি বাঁধ দেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এদিকে চিন তিব্বতের মেডোগ কাউন্টি প্রকল্পের কাজ শুরু করে দিয়েছে। থ্রি গর্জেস নামক বাঁধটি মধ্য চিনের ইয়াংজি নদীর তীরে সর্বোচ্চ বাঁধ হিসেবে তৈরি করা হচ্ছে। এই প্রকল্প থেকে প্রতিবছর ৩০০ বিলিয়ন কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিকল্পনা রয়েছে চীনের।

তিব্বতের ইয়ারলুং সাঙপো নদীতে আরও দুটি বাঁধ তৈরি করা হচ্ছে। জলবিদ্যুৎ প্রকল্পকে কাজে লাগিয়ে দেশের বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে চাইছে চীন। তবে যে জায়গায় তারা জলবিদ্যুৎ প্রকল্প গড়ে তুলতে চাইছে সেই জায়গাটি ভূমিকম্প প্রবণ এলাকা বলে পরিচিত। এই প্রকল্প গড়ে উঠলে ভূমিকম্পের সম্ভাবনা আরও বেড়ে যাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। চীনের এমন পরিকল্পনার জেরে অশনিসংকেত দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।