দশ’জন বৌ নিয়ে সু’খে সং’সার ক’র’ছে’ন এই ব্য’ক্তি! নেই কো’ন অ’ভা’ব অ’ভি’যো’গ

দশজন বৌ নিয়ে সুখে সংসার করছেন এই ব্যক্তি! নেই কোন অভাব অভিযোগ

লোকে একটা বৌকে সামলে নিয়ে সারাজীবন কাটাতেই হিমশিম খান। কারণ তাদের কথায় রমণী কে সবকিছু দিয়েও নাকি সুখী করা যায় না। কিন্তু আজ আপনাদের এমন একজনের কথা বলতে চলেছি যিনি একজন দুজন নয়, বরং দশজন বৌ নিয়ে সুখে শান্তিতে সংসার করছেন। আর সবথেকে আশ্চর্যের বিষয় যেটিসেটি হল তার কোনো স্ত্রী-এরই স্বামীর বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগই নেই। বরং জানা গেছে সকলেই নাকি সমানভাবে স্বামী সুখ পান। ভাবছেন তো এও কি সম্ভব! মানুষের ডিকশনারিতে অসম্ভব বলে কথাটা আবার নেই। এই আশ্চর্য সাফল্যের পিছনে আসল রহস্যটা এই যুবক নিজেই জানিয়েছেন ।

একসঙ্গে ৯ জন নারীকে বিয়ে করে লাইমলাইটে আসা এই ব্রাজিলিয়ান মডেলের নাম আর্থার ও উরসো। আর্থার আগেই বিবাহিত ছিলেন, কিন্তু ‘ফ্রি লাভ’ এবং ‘ওয়ান ম্যারেজ’-এর প্রতিবাদে তিনি আরও ৯ জন মহিলাকে বিয়ে করেন। সব মিলিয়ে, আর্থারের বর্তমানে ১০ জন স্ত্রী রয়েছে।

বিবাহিত আর্থার প্রথমে খুব মোটা ছিল। আর্থারের ওজন ১০০ কেজি ছাড়িয়ে গিয়েছিল। এর কারণেই তিনি খুবই অসহায় বোধ করতেন। তিনি ধীরে ধীরে ২৮ কেজি ওজন কমান। ওজন কমানোর পর মডেলিং শুরু করেন আর্থার। আর্থারের কথায় তিনি যদি ওজন না কমাতেন তাহলে ৯ জন মহিলাকে বিয়ে করতে পারতেন না।

আর্থারের নিজেকে ফিট রাখার রহস্যও এই প্রতিবেদনে আপনাদের জানাতে চলেছি। তিনি সোম থেকে শনিবার পর্যন্ত জিমে প্রবল পরিশ্রম করেন এবং রবিবার বিশ্রাম নেন। ডায়েট প্রসঙ্গে আর্থার বলেন: “আমি কখনো লবণ, চিনি বা চর্বিযুক্ত কিছু খাইনা। সুষম খাদ্যের জন্য কঠোর নিয়ম মেনে চলেছি।”

আর্থার আরও বলেন, প্রথমে বাড়িতে বসে বসে দুবেলা ভালো মন্দ খেয়ে মোটা হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। আর এর কারণেই ধীরে ধীরে ডিপ্রেশনেও চলে যাচ্ছিলেন। তারপর তিনি ওজন কমানোর সিদ্ধান্ত নেন এবং কঠোর পরিশ্রম শুরু করেন। আর এখন তিনি আকর্ষণীয় চেহারার অধিকারী। তার বর্তমান ১০জন স্ত্রী স্বামীর আকর্ষণীয় চেহারা নিয়ে ব্যাকুল।

আর্থারের প্রথম স্ত্রী হলেন লুয়ানা কাজাকি। আর্থার এবং লুয়ানা তাদের খোলামেলা সম্পর্ক নিয়ে সবসময়ই বেশ আলোচনায় থাকেন। এর আগে, আর্থার এবং তার স্ত্রী লুয়ানা সারা বিশ্বের মানুষকে চমকে দিয়েছিলেন কারণ তারা বলেছিলেন যে তারা একটি পর্নসাইট থেকে প্রতি মাসে ৫০লাখ টাকা উপার্জন করেন।