সারা বিশ্বে এই প্রথম, জন্মের পরেই দুই বিরল রোগে আক্রান্ত শিশু, বছরে চিকিৎসা খরচ ৪ কোটি

এখন জয়পুরের 44 দিনের এক সদ্যোজাত শিশু অদ্ভুত এক বিরল রোগে আক্রান্ত হয়েছে। একই সঙ্গে মেটাবলিজম সংক্রান্ত রোগ ও স্নায়ুগত রোগে ভুগছে ঐ শিশুটি। যা চিকিৎসার খরচ বছরে 4 কোটি টাকা।অতীতে কেই এমনই বিরল রোগে আক্রান্ত হয়েছে কিনা সেই নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ প্রকাশ করেছে চিকিৎসক মহল। মেটাবলিজম সংক্রান্ত রোগ, যাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় বলা হয় পম্প, সেই রোগের বছরে খরচ হল 30 লক্ষ টাকা। অপরদিকে স্নায়ু ঘটিত রোগের নাম হল এসএমএ অপরদিকে স্পাইনাল মাসকিউলার ধরনের স্নায়ু ঘটিত রোগের বছরে চিকিৎসার খরচ হল চার কোটি টাকা।

চিকিৎসক প্রিয়াংশু স্পাইনাল মাসকিউলার রোগের চিকিৎসার আগে স্পাইনাল মাসকিউলার রোগের গরিব ও মধ্যবিত্ত মেয়েদের লোককে সারিয়ে তোলার জন্যই চেষ্টা চালিয়ে যাব।কলকাতার দুই শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ অরুণালোক ভট্টাচার্য এবং প্রভাস প্রসূন গিরি জানিয়েছেন ওই শিশুটির জীবন বাঁচিয়ে রাখা চিকিৎসকদের কাছে এক বড় পরীক্ষা। কেননা শিশুটির পম্পের কারণে হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে পড়বে এবং অন্যদিকে এসএমএ-র কারণে ফুসফুসের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ঘটবে না।

ফলে প্রাপ্তবয়স্ক হয়ে ওঠার আগেই শিশুটির মৃত্যু ঘটবে। বাঁচিয়ে রাখার জন্য প্রয়োজন সারাজীবন চিকিৎসা চালানো। কিন্তু এই চিকিৎসা ভারতবর্ষে হয় না এবং এর কোন ওষুধ ভারতবর্ষে নেই। তাই এই রোগের চিকিৎসা করতে গেলে বিদেশ থেকে ওষুধ আমদানি করাতে হবে এবং সেই ওষুধের ছাড়পত্র করাতে হবে কেন্দ্র সরকারের কাছ থেকে।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন