এই একটি কারণে করিশ্মা কাপুরের সাথে বিয়ে হয়নি অক্ষয় খান্নার, এখনো একাই থেকে গিয়েছেন অভিনেতা

বিনোদ খান্নার একমাত্র পুত্র অক্ষয় খান্না কে আমরা সকলেই চিনি। তার সম্পর্কে আলাদা করে কিছু পরিচয় দেবার দরকার হয়না। প্রয়াত অভিনেতা বিনোদ খান্ন ছেলে অক্ষয় খান্নার আজ ৪৬ তম জন্মদিন। হিমালয় পূত্র ছবির মাধ্যম দিয়ে তার পদার্পণ হয়েছিল বলিউডে। এরপর ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।অক্ষয় খান্নার অন্যতম সিনেমার তাল আজও মানুষের মনে আলাদা জায়গা ছেড়ে রেখেছে। ঐশ্বর্য রাইয়ের সঙ্গে এই সিনেমাতে স্ক্রিন শেয়ার করেছিলেন অক্ষয় খান্না।

দিল চাহতা হ্যায় ছবির জন্য ফিল্মফেয়ার সেরা সহঅভিনেতার পুরস্কার পেয়েছিলেন অক্ষয় খান্না। দীর্ঘ অভিনয় জগতে তাঁর উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে হামরাজ, হাঙ্গামা, রেস, উল্লেখযোগ্য। সিনেমা জগতের বহু অভিনেত্রীর সঙ্গে নাম জড়িয়ে পড়লেও একসময় তিনি বিয়ে করতে চেয়ে ছিলেন বলিউডের অন্যতম সেরা অভিনেত্রী কারিশমা কাপুর কে। কারিশমা কাপুরের বাবা রন্ধির কাপুর সম্বন্ধ নিয়ে গিয়েছিলেন বিনোদ খান্নার বাড়ি। কিন্তু কারিশমা কাপুরের মা ববিতা কাপুর এই সম্বন্ধে খুশি ছিলেন না।

ক্যারিয়ার যখন মধ্যগগনে, তখন তিনি একেবারেই চাননি কারিশমাকে বিয়ে দিতে। তাই তিনি এই সম্পর্ককে অস্বীকার করে দেন। তখন এই সম্পর্ক স্বীকার করে নিলে হয়তো আজ কারিশমা কাপুর সুখের সংসার করতে পারতেন। একবার অক্ষয় খান্না কে বিয়ের প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করায় তিনি বলেছিলেন আমি বাচ্চাদের পছন্দ করিনা তাই আজ পর্যন্ত বিয়ের কথা চিন্তা করিনি। ভবিষ্যতেও করব বলে মনে হয় না। আমি একা ভালো আছি। একটি সম্পর্কে কিছু সময়ের জন্য থাকতে পারি কিন্তু সেই সম্পর্ক কে দীর্ঘদিন চালাতে পারি না।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, অক্ষয় খান্নার বাবা বিনোদ খান্না মারা যান ২০১৭ সালে। আজ এই বয়সেও অক্ষয় খান্না বিয়ে করেননি।ভালো নায়ক এবং খলনায়ক উভয় চরিত্রে ভালোভাবে অভিনয় করলেও বাস্তব জীবনে স্বামীর ভূমিকায় বোধহয় তিনি একেবারেই স্বচ্ছন্দ বোধ করবেন না।তাই সারা জীবন একা থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি।