মাটিতে মিশে আছে ভুড়িভুঁড়ি সোনা, হুড়োহুড়ি এলাকা জুড়ে, দেখুন সোনা তুলে আনার ভিডিও

বাংলা সুবর্ণরেখা নদীর কথা আমরা সকলেই জানি। অনেকেই মনে করেন যে এই নদীর গর্ভস্থ অঞ্চল থেকে নাকি সোনা পাওয়া গিয়েছিল। সত্যি মিথ্যে জানা না থাকলেও সেই প্রচলিত কথা থেকেই যে এই নদীর নাম এসেছে তা আমরা সকলেই জানি। এবার ঠিক একই রকম একটি ঘটনা ঘটল কঙ্গো অববাহিকাতে। সেখানে মাটির মধ্যে মিশে থাকতে দেখা গেছে সোনাকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে যে কঙ্গর লুহিহি পাহাড়ের কাছে একটি জায়গায় জনগণের ঢল নেমেছে। জায়গাটি কঙ্গোর দক্ষিণ কিভু প্রদেশে অবস্থিত রয়েছে।

সেখানে নাকি মাটির সঙ্গে মিশে থাকতে দেখা গেছে বিপুল পরিমাণে স্বর্ণ।ভাইরাল হওয়া ভিডিও দেখতে পাওয়া গেছে,স্থানীয়রা সোনা খুঁজে পাবার জন্য সেখানে ক্রমাগত মাটি খুঁড়ে যাচ্ছে। যে যা পেয়েছে হাতের কাছে, তাই দিয়ে খুঁড়ছে মাটি। কেউ বেলচা দিয়ে মাটি খুরে যাচ্ছে, কেউ আবার খালি হাতেই কাজ চালাচ্ছেন। হাতের কাছে যতটুকু মাটি পাওয়া যায়, ততটুকুই আঁকড়ে ধরতে চাইছেন তারা।

এই ভিডিওর পাশাপাশি আরেকটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এটিও সেই অঞ্চলের ভিডিও। দ্বিতীয় ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, একটি পাত্রে প্রাপ্ত সোনা ধুয়ে অন্য একটি বাটিতে রাখছে গ্রামবাসীরা। এ প্রসঙ্গে এক সাংবাদিক টুইটারে লিখেছেন যে, রিপাবলিক অব কঙ্গো থেকে একটি ভিডিও আমাদের বিরাট বড় সারপ্রাইজ দিয়েছে।

এলাকার কিছু মানুষের কাছে অবাক করার মত বিষয় সামনে এসেছে। এমন একটি পাহাড় আবিষ্কৃত হয়েছে যার পুরোটাই সোনা দিয়ে মোড়া।স্থানীয়রা যে যতটা পাড়ছে মাটি খুঁড়ে সোনা নিয়ে যাচ্ছে। এই প্রাপ্ত সোনা যে তাদের জীবনের গতিবিধি বদলে দিতে পারে তা বলাই বাহুল্য। তবে এই স্থানে এত খননকারীদের আনাগোনা বেড়ে গেছে যে, গ্রামের ওপর বাড়তি চাপ তৈরি হচ্ছে। আপাতত অতিরিক্ত খননকার্য বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সেখানকার প্রশাসনের তরফ থেকে। পরবর্তী নোটিশ না পাওয়া পর্যন্ত আর কোন খনন কার্য করা যাবে না।