বছরের শেষ দিনে হাড় কাঁপানো শীত কলকাতার, রাজের ৬ জেলায় শৈত্যপ্রবাহের আশঙ্কা

আজ বছরের শেষ দিন। আর মাত্র কয়েকটা ঘণ্টার অপেক্ষা। তারপরেই পুরনো বছর পেরিয়ে নতুন বছরকে অভ্যর্থনা জানাতে চলেছে সারা বিশ্ব। এদিকে ডিসেম্বর মাসের শেষের দিক থেকেই সারা দেশজুড়ে জাঁকিয়ে শীত পড়ে গিয়েছে। বলা ভালো, প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী অন্যান্য বারের মতো এবারেও প্রকৃত শীতের আমেজের মধ্যেই বর্ষবরণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন দেশবাসী।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুসারে, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাপমাত্রার পারদ আরও দুই ডিগ্রি নিচে নামবে। রাজ্যের পশ্চিমভাগের ছয়টি জেলাতে বৃহস্পতিবার থেকে আগামী শুক্রবার পর্যন্ত শৈত্য প্রবাহের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। উত্তরে হিমালয় থেকে আগত হিমেল বাতাসের দরুন পুরুলিয়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং নদীয়াতে শৈত্য প্রবাহের পূর্বাভাস দিচ্ছে হাওয়া অফিস।

আবহাওয়া দপ্তরের রিপোর্ট অনুসারে, জম্মু-কাশ্মীর এবং হিমাচল প্রদেশের গত কয়েকদিন ধরে প্রবল তুষারপাতের ফলে উত্তর পশ্চিম প্রান্ত থেকে শীতল বাতাস দেশে প্রবেশ করছে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, বছরের শেষ দিনে অর্থাৎ বৃহস্পতিবার কলকাতা শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২-১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশে পাশে থাকবে।

কলকাতা তুলনায় এদিন অন্যান্য জেলাগুলির তাপমাত্রা আরও দুই ডিগ্রি কম থাকবে বলে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশে পাশে থাকবে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২.৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের থেকে যা 1° কম। শহর এবং শহরতলীর আপেক্ষিক আদ্রতা এদিন সর্বোচ্চ ৯৫ শতাংশ থেকে সর্বনিম্ন ৩৯ শতাংশের আশে পাশে থাকবে।