দুটো হাত নেই, অগত্যা উরুতেই কো’ভি’ড ভ্যা’ক’সি’ন নিলেন এই যুবক

দুটি হাত নেই, তাতে কি হয়েছে? হাত না থাক, পা দুটো তো আছে! পা দিয়েই কার্যত বিশ্ব জয় করে ফেলেছেন ঝাড়খণ্ডের বাসিন্দা গুলশন লোহার। পা দিয়ে তিনি সব কাজ করতে পারেন। কম্পিউটার চালাতে পারেন। নিজেকে এমন ভাবেই প্রশিক্ষিত করে তুলেছেন তিনি। এহেন ব্যক্তি সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের টিকা নিলেন। তবে তার হাত নেই। হাতের বাঁধনে তাই তাকে উরুতে ভ্যাকসিন নিতে হয়েছে।

গুলশান ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়েছিলেন। সেখান থেকেই তিনি জানতে পারেন যে যদি তার হাতে ভ্যাকসিন দেওয়া না যায় তাহলে উরুর পেশিতে ভ্যাকসিন দেওয়া যেতে পারে। সেইমতো তিনি স্থানীয় হেলথ কেয়ার সেন্টারে গিয়ে সম্প্রতি ভ্যাকসিন নিয়ে এসেছেন। বর্তমানে হাতের পেশিতে যে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে সেগুলো আসলে ইন্ট্রামাসকুলার ভ্যাকসিন।

চিকিৎসকেরা সাধারণত কাঁধের ডেলটয়েড পেশীতে ভ্যাকসিন দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কারণ এই পেশীকলার মধ্যেই ইমিউন সেল থাকে। উরুর পেশিতে ভ্যাকসিন দিলে কুচকির লিম্ফ নোডের সঙ্গে সমন্বয় সৃষ্টি করে। কাজেই উরুতে ভ্যাকসিন নিলে সেভাবে কোনো সমস্যা হয় না বলেই জানাচ্ছে বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু উরুতে ভ্যাকসিন নেওয়ার সময় কিছুটা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

২১শে জুন থেকে দেশজুড়ে বিনামূল্যে টিকা করন শুরু হয়েছে। প্রথম দিনেই সারা দেশের প্রায় ৮০ লক্ষ মানুষটিকে নিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। একদিনের নিরিখে টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে যা রেকর্ড বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। ৭৫ শতাংশ ভ্যাকসিন এবার থেকে রাজ্য সরকারগুলিকে বিলি করবে কেন্দ্রীয় সরকার। সেইমতো ভ্যাক্সিনেশন প্রক্রিয়ায় দ্রুতগতি আসবে বলে মনে করা হচ্ছে।