ফুচকার জন্য এই ব’লি তা’র’কা’রা অনেক কিছুই ক’র’তে পারেন, জানুন কে কি করেছিলেন

ফুচকা বল কি গোলগাপ্পা, বাঙালি হোক অথবা অবাঙালি, এই খাদ্যটি আমাদের সকলের প্রিয়। কম খরচে হাতের কাছে মনের মতই উপকরণটি পেয়ে যাই বলে আরো বেশি করে আমরা প্রেমে পড়ে যাই ফুচকার। প্রত্যেকটি শহরে আলাদা আলাদা নামে পরিচিত এই স্ট্রিট ফুড। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি নামিদামি ব্যক্তিত্বরাও ফুচকা খেতে ভালোবাসেন। চলুন দেখে নেওয়া যাক আজকে কিছু তারকার ফুচকা প্রেমের গল্প।

স্বাস্থ্য সচেতনতা হিসেবে সকলের আগে নাম উঠে আসে শিল্পা শেঠির। কিন্তু যতোই স্বাস্থ্য সচেতন হোন না কেন তিনি, ফুচকার নাম শুনলে তার জিভে জল চলে আসে। বহুবার স্বামীর সঙ্গে জমিয়ে ফুচকা খাওয়ার ছবি পোস্ট করেছেন ধারকান খ্যাত শিল্পা শেট্টি। ফুচকার প্রেমে পাগল হয়ে যান আরও একজন অভিনেত্রী যিনি হলেন, অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। সবকিছু নিয়ে বিতর্ক তৈরি হলেও ফুচকা নিয়ে তিনি কোনদিন বিতর্কে যাবেন না। সম্প্রতি লেন্স বন্দী করা হয়েছে তার ফুচকা খাবার একটি ছবি

অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় একাধিকবার বাড়িতে ফুচকা খেয়েছেন, যে সমস্ত ছবি আমরা সোশ্যাল মিডিয়া দেখতে পেয়েছি বহুবার। সকালে যখন এগিয়ে রানবির কাপুর কেন পিছিয়ে থাকবেন। ঠান্ডা পানীয় বিজ্ঞাপনে এড দিলেও তিনি কিন্তু ফুচকা খেতে পছন্দ করেন খুবই। তাকেও লেন্স বন্দী করা হয়েছে অনেকবার ফুচকা খাওয়ার সময়। তামাশা চলাকালীন দীপিকা পাডুকোন কে সঙ্গে নিয়ে ফুচকা খেতে মনোযোগ দিতে দেখা দিয়েছিল রানবির কাপুর কে।

এত অভিনেতা ইরফান খান ও ফুচকা খেতে খুব পছন্দ করতেন। তার মৃত্যুর পর তার ছেলে বাবার ফুচকা খাওয়ার একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলেন সকলের সঙ্গে। অ্যাভেঞ্জার্স এন্ড গেম এর পরিচালক রুশো ভারতে এসে প্রথম ফুচকার স্বাদ নিয়েছিলেন, তারপর থেকেই তিনি নাকি প্রেমে পড়ে যান ফুচকার।

এক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই আমাদের কিং খান। জিরো ছবির ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠানে মন ভরে ফুচকা খেতে দেখা গেছে তাকে। ক্যাটরিনা কাইফ এবং অনুষ্কা শর্মা যখন সেলফি নিতে ব্যস্ত তখন সকলকে ছেড়ে ফুচকাতে মন দিয়েছিলেন কিং খান।

এবার কথা বলি বলিউডের পাশাপাশি হলিউড কাঁপানো অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার। নিউ ইয়র্কে খোলা রেস্তোরাঁয় মন দিয়ে ফুচকা খেতে দেখা গেছে তাকে। সম্প্রতি নিজের দেশের ফুচকা প্রেমের কথা বিদেশে সকলের কাছে জমিয়ে বলেছেন তিনি।