সাধের বাইক কি’ন’তে খুচরো টা’কা নিয়ে শোরুমে প্র’বে’শ করলেন যুবক, কয়েন গু’ন’তে সময় লাগলো ১০ ঘন্টা

যাকে বলে তি থেকে তাল বানানো। আমাদের খুচরো পয়সা জমানোর স্বভাব আছে। আমরা সচরাচর জমিয়ে থাকি, কিন্তু সেটা বেশিদিন করা সম্ভব হয় না। কিছুদিনের মধ্যেই সেই টাকা ভেঙ্গে আমরা অন্য কোনও কাজকরি।

কিন্তু এবার এক বিরাট ধোইর্য্যের প্রমাণ দিল তামিলনাড়ুর এক যুবক। গাড়ি বাইক কেনার শখ কার থাকে না? সবারই আছে, সেই হিসেবেই শোরুমে সুন্দর ভাবে গাড়ি সাজিয়ে রাখে শোরুম মালিকেরা। তবে সেই তামিলনাড়ুর এক যুবক এমন কান্ড ঘটালো, তাতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলতে হল শোরুমের কর্মচারীদের।

কারণ ২.৬ লক্ষ টাকার বাইক কিনতে শোরুমে ঢুকেছে সেই যুবক এক বস্তা কয়েক নিয়ে। শুনে কি আপনার বিশ্বাস হল, এটা বিশ্বাস করার মতো কথা নয়।

বাজাজ ডমিনার ৪০০ সিসির বাইক কিনতে এক বস্তা কয়েন নিয়ে ঢুকল সেই যুবক। তামিলনাড়ুর সালেম শহরের গান্ধী ময়দানের বাসিন্দা ভি ভূপতি গত ৩ বছর থেকে এই কয়েন জমিয়েছে।

আরো পড়ুন: ৪ দিনের মাথায় দাম্পত্যের ই’তি! পরিবারের অমতে বি’য়ে করে যা পরিণতি হলো দুজনের

আর সেই জমানো টাকা নিয়েই গত শনিবার এই কাজ করেছেন। এদিকে শোরুমের কর্মচারীদের একেবারে খুবই খারাপ অবস্থা। শোরুমের ম্যানেজিং ডিরেক্টর জানিয়েছেন, মোট কয়েন গুনতে সময় লেগেছে ১০ ঘন্টার মতো।

সেই যুবক জানায়, ৩ বছর আগে সে একটি বাইক পছন্দ করেছিল যার দাম ২ লক্ষ টাকা। কিন্তু টাকা ছিল না। কিন্তু স্বপ্ন তো পূরণ করতেই হবে।

আর তখন থেকেই সে জমাতে শুরু করে। নিজের জমানো টাকা দিয়েই সে তাঁর স্বপ্ন পূরণ করেছে। অবহস্য তাকে দারুণ পরিশ্রম করতে হয়েছে এই টাকা জমানোর জন্য।তবে তাঁর উদ্দেশ্যে সে সফল হতে পেরেছে।