বিশ্বের সবথেকে ছোট সাধু, ১৮ ইঞ্চি উচ্চতার নাগা সন্ন্যাসীর কৃপায় সেরে যায় সব রোগ, দেখুন ভিডিও

মেলা পূজা-পার্বণ অনুষ্ঠান, সবকিছুই আমাদের এই বৈচিত্রময় দেশে দেখতে পাওয়া যায়। আমাদের দেশ ভারত বর্ষে নানা ধর্মের মানুষকে একত্রে ভালোবেসে থাকতে দেখা যায়। আমরা সব ধর্মের অনুষ্ঠানকেই মন থেকে ভালবাসি, সব অনুষ্ঠান প্রত্যেক ভারতবাসী এর জন্যই। আর সেই কারণেই বলা যেতে পারে একেবারে বারো মাসে তেরো পার্বণ। তবে এই পার্বণ গুলোর মধ্যে সবথেকে আকর্ষনীয় কুম্ভ মেলা, কুম্ভ মেলা যেখানে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষ রা এসে যোগদান করে, বিশেষ করে বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন ধরনের সাধুর আগমন আরও বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে মেলা কে।শোনা যায় এই মেলায় উপস্থিত সাধুরা নাকি হিমালয় থেকে নেমে আসে।

বছরের পর বছর ধরে স্বল্প খাদ্যে বেঁচে থাকে তারা, শোনা যায় তাদের নাকি ক্ষমতাও বিশাল। পাহাড়ে বসে থাকা এইসব সাধু যাদের মধ্যে রয়েছে অনেকেই নগ্ন সাধু, তাদের দীর্ঘ বছরের সাধনা ও শক্তির দ্বারা অসম্ভবকে সম্ভব করে তোলে তারা।

এবার এই সাধুদের ভিড়েই এক অবাক করা সাধু নজর কেড়েছে সবার, যার উচ্চতা মাত্র 18 ইঞ্চি। বয়স তার 55 বছর, নাম তার নারায়ণ নন্দ গিরি মহারাজ, তার এই দেহে, রয়েছে হাজারটা রুদ্রাক্ষের মালা, মাথায় তীলক কাটা। সাধুবাবা হাঁটতে পারে না কারণ দেহের তুলনায় তার পা খুবই ছোট, তবে পায়ের উপরে সমস্ত কিছুই দেখে বোঝার উপায় নেই যে তিনি এত কম উচ্চতার একজন মানুষ। আর তিনি হয়তো বিশ্বের মধ্যে প্রথম কম উচ্চতার একজন সাধু বাবা। যার একটি স্পর্শ নাকি সবাইকে সুস্থ ও ভালো করে দিচ্ছে,যার কারণে তার জনপ্রিয়তা সম্প্রতি বৃদ্ধি পেয়েছে অনেকটাই।