প্রতিদিনই বাড়ছে জলস্তর, বিপদ বাড়ছে ভারতের, ধেয়ে আসবে বিধ্বংসী প্লাবন

সময়ের সাথে সাথে পৃথিবী উষ্ণ হয়ে চলেছে,যার ফলে আগামী সময়ে মানব জাতির উপরে একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়তে চলেছে বলে জানিয়েছে বিজ্ঞানীরা। এই বিশ্ব উষ্ণায়নের কারণে গলে যাচ্ছে আন্টার্টিকায় বরফ যার ফলে একেবারেই বেড়ে যাচ্ছে সমুদ্রের জল স্তর। উপকূলের বিভিন্ন দেশের বিশেষ করে ভারতের বাড়ছে বিপদ। সম্প্রতি নেচার পত্রিকায় ৪২ টি সংগঠনের মোট ৮৪ জন বিজ্ঞানী একটি রিপোর্ট পেশ করেছে।

২০১২ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত এই পাঁচ বছর মোট আন্টার্টিকায় ২৪১ বিলিয়ন টন বরফ গলেছে। যে কারণে হুহু করে বৃদ্ধি পাচ্ছে সমুদ্রের জল স্তর। মাত্র পাঁচ বছরেই এত পরিমাণে বরফ গলন কিন্তু ১৯৯২ থেকে ২০১১ পর্যন্ত বরফ গলনের পরিমাণ মাত্র ৮৪ বিলিয়ন টন। যে হু হু করে প্রচুর পরিমাণে বরফ গলছে অ্যান্টার্কটিকার, সেটার প্রভাব একেবারে সরাসরি পড়তে চলেছে ভারত মহাসাগরের উপর। এভাবেই চলতে থাকলে আগামী ২১০০ সালের মধ্যে ভারত মহাসাগরের জলস্তর বেড়ে যেতে পারে ২ মিটার পর্যন্ত।

ইতিমধ্যে ইংল্যান্ডের লিডস বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী অ্যান্ড্রু জানিয়েছেন, একেবারে শতকের শেষের দিকে পরিস্থিতি আরও ভয়ঙ্কর থেকে ভয়ঙ্কর হতে চলেছে। এন্টারটিকা একাই ১৬ সেন্টিমিটার জলস্তর বাড়িয়ে দিতে সক্ষম ভারত মহাসাগরের। আর এসবের পেছনে যে আবহাওয়া পরিবর্তন কে দোষী সাব্যস্ত করেছে সেটা কিন্তু স্পষ্ট। তাছাড়া কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা জানিয়েছে ক্রমে ক্রমে আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটতে থাকবে এবং আগামী দিনে পরিস্থিতি আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে থাকবে।