সিবিআই তদন্তে সম্মতি নিতে হবে রাজ্যের, রায় দিলো সুপ্রিম কোর্ট

রাজ্যের অনুমতি ছাড়া কেন্দ্র তদন্তের খাতিরে জবরদস্তি সিবিআইকে কোনো তদন্তের সঙ্গে যুক্ত করতে পারবে না। সম্প্রতি একটি মামলার শুনানিতে এমনই রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। যেখানে উচ্চ আদালতের বিচারপতিরা স্পষ্ট করে দিলেন, তদন্তের খাতিরে সিবিআইয়ের দ্বারস্থ হতে চাইলে আগে রাজ্যের সম্মতি প্রয়োজন। এটাই যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোর এক অন্যতম ভিত্তি।

উল্লেখ্য, উচ্চ আদালতের এহেন রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় শাসক দলের বিরোধী রাজ্যগুলি যেমন পশ্চিমবঙ্গ, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড, ছত্তীসগড়, কেরল, মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব এবং মিজোরাম কার্যত বিশেষ স্বস্তি পেল। কারণ শাসক দল বিরোধী এই আটটি রাজ্যের যে কোনো মামলার তদন্তের খাতিরে জোর করে সিবিআই তদন্ত দাবি করতে পারবে না বিরোধী বিজেপি শিবির। পাশাপাশি, এই রায়ের ফলে কেন্দ্রীয় শাসকদল জোর ধাক্কা খেলো বলেই মনে করা হচ্ছে।

কারণ বিগত বেশ কয়েক দিন ধরেই বিজেপির ওপর সংঘটিত বেশকিছু ইস্যুর তদন্ত করতে সিবিআই তদন্তের দাবি জানাচ্ছিল বিজেপি। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপি বিরোধী শিবিরগুলি আবার কেন্দ্রীয় শাসকদলের বিরুদ্ধে সিবিআইয়ের অপব্যবহারের অভিযোগ আনছিলেন। সেই বিতর্কের পরিপ্রেক্ষিতে উচ্চ আদালতের এহেন বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। সুপ্রিমকোর্টে তরফ থেকে জানানো হয়েছে, দিল্লি স্পেশাল পুলিশ এস্ট্যাবলিশমেন্ট অ্যাক্ট অনুযায়ী রাজ্যের অনুমতি ছাড়া সিবিআই তদন্ত কার্যকর করা যায় না।

উচ্চ আদালতের দুই বিচারপতি এ এম খানউইলকর এবং বিচারপতি বি আর গভাই এদিন মামলার শুনানিতে বলেন, সংবিধানে বর্ণিত যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোর উপর ভিত্তি করেই এমন আইন আনা হয়েছে। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে একটি বেসরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে ওঠা কয়লা বিক্রি সংক্রান্ত দুর্নীতির অভিযোগের ভিত্তিতে এদিন বিচারপতিরা এমন তাৎপর্যপূর্ণ রায় প্রদান করেছেন।