নির্বাচনের মধ্যেই ঘোষণা রাজ্য সরকারের, দেওয়া হবে ১ হাজার টাকা

করোনা পর্যায়ে দেশজুড়ে রক্তের ঘাটতি দেখা গিয়েছিল। কারণ অতিমারির সময় রক্তদান শিবিরের আয়োজন সেভাবে করা সম্ভব হয়নি। তবে লকডাউন কিছুটা শিথিল হতেই বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার তরফ থেকে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয় এবং রক্ত সংগ্রহ করা হতে থাকে। তবুও রক্তের ঘাটতি মেটানো সম্ভব হচ্ছে না। তার উপর আবার ভোট উপলক্ষে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করাও সে ভাবে সম্ভব হচ্ছে না।

এমন পরিস্থিতিতে রাজ্যে রক্তের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। চিকিৎসার পরিসেবার সুবিধার্থে রক্তদান শিবিরের আয়োজনে উৎসাহ প্রদান করতে এবার বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে নগদ অর্থ প্রদানের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। সম্প্রতি রাজ্য সরকারের তরফ থেকে প্রকাশিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, আগামী দিনে যে শিবিরগুলি রক্তদানের আয়োজন করবে তাদের নগদ অর্থ প্রদান করা হবে।

সরকারের তরফ থেকে প্রকাশিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, এখন থেকে যে রক্তদান শিবিরে ৫০ ইউনিট কিংবা তার থেকেও বেশি রক্ত সংগ্রহ করা সম্ভব হবে সেই সংস্থাগুলিকে নগদ হাজার টাকা প্রদান করা হবে। ৫০ ইউনিটের কম রক্ত যে শিবির সংগ্রহ করবে, সেই শিবিরের উদ্যোক্তারা পাবে ৫০০ টাকা। পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরের তরফ থেকে এই বিশেষ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

এর ফলে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গুলি রক্তদান শিবিরের আয়োজন করতে পারবে। পাশাপাশি রাজ্যের রক্তের ঘাটতিও মেটানো সম্ভব হবে বলে আশা করছে সরকার।