“ব্রা” পরেই ক্যামেরার সামনে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করে স্নান রাখির, শালীনতার সীমা ছাড়িয়ে গেল এই শো

রাখি সাওয়ান্ত মানে সমালোচনার ঝড়। রাখি মানেই কোনো না কোনো নতুন ঘটনা। আজ থেকে বেশ কয়েক বছর আগে স্বয়ংবর সভা বসিয়ে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি। অনেকেই মনে করেছিলেন যে এভাবে হয়তো বিয়ে করা যায়। বিয়েটা সত্যি করে ও ছিলেন তিনি। তবে বছর ঘুরতে না ঘুরতেই ডিভোর্স নিয়ে নেন তিনি। তখনই সকলে বুঝতে পারেন যে পুরোটাই ছিল খবরের শিরোনামে থাকার একটি মাত্র ট্রিক।

এরপর কখনো বিয়ের প্রস্তাব রাখেন তো কখনো সন্তানের মা হবার, কখনো চীনে গিয়ে চীনের প্রধানমন্ত্রী কে বিয়ে করার প্রস্তাব করেন তো কখনো সুশান্ত কে স্বপ্নে দেখার দাবি করেন, তার প্রত্যেকটি ভিডিও দেখে মজা পান নেটিজেনরা। মজা পাওয়ার মতই কথা বলেন রাখি। তবে খুব সিরিয়াস ভাবে কথাগুলি বলেন তিনি, দেখে মনে হবে না যে তিনি খবরের শিরোনামে থাকার জন্য এইরকম কাজ করতে পারেন।

চলতি বছরে বিগ বসকে খবরের শিরোনামে তুলে দেবার জন্য আনতে হয়েছিল রাখি কে। সুশান্তের মৃত্যুর পর অনেকেই বিগ বস দেখতে চাইছিলেন না। তবে যেদিন থেকে শুরু হয়েছে রাখি সাওয়ান্তের এন্ট্রি, সেদিন থেকেই চড়চড় করে বেড়ে গেছে বিগ বসএর টিআরপি। কখনো শাড়ি পরতে পারছেন না তিনি, কখনো আবার ঝগড়া করে বিছানা তুলছে না। প্রতিদিন নিত্যনতুন অভিনয় করে দেখাচ্ছেন রাখি।

সম্প্রতি বিগবসে দেখা গেল যে, সকল প্রতিযোগিদের বলা হয়েছে তার বাথরুম ব্যবহার করতে পারবেন না। এটাও ছিল একটি খেলার অংশ। কিন্তু খেলার অংশ বললেই কি আর রাখে কে হার মানানো যায়।রীতিমতো সুইমিংপুলের পাশে বালতি নিয়ে বসে পড়েন রাখি। তাকে স্নান করিয়ে দিতে দেখা যায় রাহুল বৈদ্য কে।

এই ভিডিওটি দেখে অনেকেই নিন্দা করেছেন রাখি সাওয়ান্তের।জানিয়েছেন যে অশ্লীলতার একেবারে চরম পর্যায়ে পৌঁছে গেছেন তিনি। তবে যত সমালোচনা হবে ততই বিগ বস টিআরপি বাড়বে, তাই সমালোচনা নিয়ে কখনওই চিন্তিত হতে দেখা যায় না রাখিকে।অন্যদিকে রাখি যখন স্নান করছেন,তখন তার সামনে ওয়ার্কআউট করতে দেখা গেল আ’লী গণিকে। অন্যদিকে ঠান্ডা জলে স্নান করতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে রাখি কে। সব মিলিয়ে বিগ বস এখন আবার টিআরপি তুঙ্গে পৌঁছে গেছে, তা বলাই বাহুল্য।