দঙ্গল খ্যাত ফোগট পরিবারে শোকের ছায়া, আত্মঘাতী ববিতা ফোগটের বোন

ক্রীড়া জগতে দারুন শোকের ছায়া, বিখ্যাত ভারতীয় 2 কুস্তিগীর গীতা ফোগাট ও বাবিতা ফোগাটের বোন, তিনিও ছিলেন একজন কুস্তিগীর। ফাইনালে মাত্র এক পয়েন্টের কারণে হেরে যাওয়ায় নিজের আবেগকে সামাল দিতে না পেরে শেষ পর্যন্ত আত্মহত্যার পথ বেছে নিল। সেই কুস্তিগীরের নাম ঋত্বিকা ফোগাট, গীতা ও বাবিতা ফোগাটের তুতো বোন। ভারতের জন্য এই দুই বোন কমনওয়েলথে সোনা জিতেছে, দেশের নাম উজ্জ্বল করেছে।

তাদের জনপ্রিয়তা এমনিতেই ছিল, কিন্তু দাঙ্গাল ছবির পরে পরিবার আরও বেশী জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে সাধারণ পরিবারের মেয়েরা ও তাদের পরিবার এরা কিভাবে সাহসী পদক্ষেপ গ্রহণ করে ভারতের নাম উজ্জ্বল করেছে, সেটাই দেখানো হয়েছে ছবিতে। কিন্তু এই পরিবারেই এবার নেমে এসেছে শোকের ছায়া, মরণকালে তার বয়স ছিল মাত্র ১৭ বছর।
জানা যায় রাজস্থানের ভরতপুরে লোহাগড় স্টেডিয়ামে একটি কুস্তি টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছিল। আর সেখানেই অংশগ্রহণ করেন রীতিকা, তার দারুণ পারফরম্যান্স এর জন্য ফাইনালে ওঠে সে, যেটা অনুষ্ঠিত হয় গত ১৪ ই মার্চ।

আর সেই ফাইনাল দেখতে খোদ উপস্থিত হয় মহাবীর সিং ফোগাট। কিন্তু ১ পয়েন্টের জন্য সে ফাইনালে হেরে যায়। আর তারপর থেকেই একেবারে ভেঙে পরে রীতিকা। আর তারপরেই এই আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় সে। পরিবারের তরফ থেকে জানা যায় ফাইনাল ম্যাচ হারের পরে অনেকটাই মানসিক অবসাদে চলে গিয়েছিলে। কিন্তু শেষপর্যন্ত মানসিক অবসাদের কারণে সে, এই পথ বেছে নেবে তা কেউ ভাবতেও পারেনি।