৭ জানুয়ারি খুলছে স্কুল, পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়ারা যাবে ক্লাসে, মানতে হবে ক’রো’না বিধি

করোনাকালে দীর্ঘ প্রায় দশ মাস ধরে স্কুল বন্ধ রয়েছে। দেশের কয়েকটি রাজ্য অবশ্য মাঝে আনলক পর্বে স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিল। তবে করোনা দাপট বৃদ্ধি পাওয়াতে দেশের বেশিরভাগ রাজ্যই স্কুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তেই অনড় থাকে। নতুন বছরের শুরুতেই অবশ্য সিদ্ধান্ত বদলিয়েছে পাঞ্জাব সরকার। পাঞ্জাবে তাই আগামী ৭ই জানুয়ারি থেকে পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত স্কুল খোলা হতে চলেছে বলে জানানো হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বুধবার পাঞ্জাবের শিক্ষামন্ত্রী বিজয় ইন্দর সিঙ্গলা জানিয়েছেন, স্কুলপড়ুয়াদের অভিভাবকেরা বেশ কিছুদিন ধরেই স্কুল খোলার দাবি জানাচ্ছিলেন। সেই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আগামী ৭ই জানুয়ারি অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে সরকারি, আধা-সরকারি ও বেসরকারি বিদ্যালয়গুলি খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। পাঞ্জাব সরকারের তরফ থেকে প্রকাশিত নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা ৩টে পর্যন্ত ক্লাস চলবে।

কেবল পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত পড়ুয়ারাই আপাতত স্কুলে আসতে পারবেন। করোনাকালে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্ত সুরক্ষা বিধি কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। এ সম্পর্কে প্রধান দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষকে। সমস্ত স্কুলের স্কুল পরিচালনমণ্ডলীগুলিও কঠোরভাবে সতর্কতা বিধি পালনের দায়িত্ব পেয়েছে। স্কুল খোলার আগে প্রধান শিক্ষক এবং অন্যান্যদের সঙ্গে যাবতীয় আলোচনা করে তবেই স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাঞ্জাবের শিক্ষা মন্ত্রী।

এ সম্পর্কে স্কুল প্রধানদের পরামর্শ ছিল, বার্ষিক পরীক্ষা হওয়ার আগে স্কুল খোলা হোক। সেই মতোই স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে পাঞ্জাব সরকার। উল্লেখ্য, আনলক পর্বে এর আগে ত্রিপুরা, মহারাষ্ট্র, পুদুচেরি, পাঞ্জাব, বিহার এবং উত্তরপ্রদেশ নবম-দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের নিজ ইচ্ছায় স্কুলে গিয়ে ক্লাস করার অনুমতি দিয়েছিল। এবার পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত পড়ুয়াদের স্কুলে এসে ক্লাস করার অনুমোদন দিল পাঞ্জাব সরকার।