জুলাই থেকেই ব’দ’লে গে’লো নি’য়’ম! ড্রাইভিং লাইসেন্স পে’তে আর দি’তে হ’বে না পরীক্ষা

১লা জুলাই থেকেই বদলে যাচ্ছে ড্রাইভিং লাইসেন্স সংক্রান্ত নিয়ম। এবার থেকে আর ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার জন্য টেস্ট দিতে হবে না। সড়ক পরিবহন মন্ত্রকের তরফ থেকে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুসারে এবার থেকে আর আরটিও অফিসে গিয়ে ড্রাইভিংয়ের পরীক্ষা দেওয়ার দরকার পড়বে না। ১লা জুলাই এর পর থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে গেলে পরীক্ষা দেওয়া আর বাধ্যমূলক থাকছে না। ওইদিনের আগে পর্যন্ত পরীক্ষা দেওয়ার নিয়ম কার্যকর থাকছে।

বৈধ ট্রেনিং সেন্টার থেকে ট্রেনিং নিয়ে থাকলে আর আরটিওতে দিয়ে ড্রাইভিং এর পরীক্ষা দিতে হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে সড়ক পরিবহন মন্ত্রক। সরকারের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই রাজ্যের ড্রাইভিং লাইসেন্সের কেন্দ্রগুলিকে মান্যতা দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। টু-উইলার ও ফোর উইলার এখান থেকে চালানো শিখে নিতে পারবেন লাইসেন্স নিতে ইচ্ছুক ব্যাক্তি। প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য বেশ কিছু নিয়ম বেঁধে দিয়েছে সড়ক পরিবহন মন্ত্রক।

ড্রাইভিং সেন্টারে লাইট মোটর ভেহিকেলের জন্য ৪ সপ্তাহে ২৯ ঘণ্টা ড্রাইভিংয়ের প্রশিক্ষণ নিতে হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও অবশ্য ২৮ দিনের ট্রেনিং সম্পন্ন করতে হবে। ড্রাইভিং সেন্টার যদি পাস মার্ক দিয়ে দেয় তাহলে আর কোথাও পরীক্ষা দেওয়ার দরকার পড়বে না। হেভি মোটর ভেহিকেলের ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য ৬ সপ্তাহে ৩৮ ঘণ্টা ড্রাইভিং করতে হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন মন্ত্রকের তরফ থেকে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, মান্যতা প্রাপ্ত এই ড্রাইভিং ট্রেনিং সেন্টারগুলিতেই ড্রাইভিং সংক্রান্ত পুরো ট্রেনিং পাবেন গাড়িচালকেরা।