মূলত এদের উপর অত্যাচার করেই পা-হাতের হাড় দিয়ে তৈরি হয়েছে রাস্তা, জেনে নিন মর্মান্তিক কাহিনী

যুদ্ধ দ্বন্দ্ব, হানাহানি কখনই মানুষের ভাল করে নি। এই যুদ্ধের দ্বারা বাহ্যিকভাবে হয়তো একজন সফল হয়েছে আর একজন অসফল কিন্তু মানসিকভাবে দুজনেই পরাজিত হয়েছে। এইসব কথার সাক্ষী রয়েছে ইতিহাস। দেখা গেছে একটি শতাব্দীতেই দুটি বিশ্বযুদ্ধ। আর যেখানে প্রমাণ করেছে ক্ষমতা টাই আসল লক্ষ্য। আর এসবের মধ্যে সবথেকে বেশি নিপীড়িত হয়েছে সাধারণ মানুষ। যে দল সাফল্য লাভ করেছে তারাই অত্যাচার করেছে পরাজিত দলের ওপর তাও একেবারে অকথ্য অত্যাচার।

কথাটা শুনে অবাক লাগলেও সত্যি এটাই, এই ধরনের ঘটনার সাক্ষী রয়েছে অহংকার ইতিহাস। রাশিয়ার উত্তর পূর্বে সাইবেরিয়ার ইয়াকুটস্কের নিকটবর্তী এলাকায় পাওয়া গিয়েছে মানুষের হাড়। সেখানকার এক বিশাল হাইওয়ের পাশেই হাজার হাজার মানুষের হাত-পা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের হাড়গোড় পাওয়া গিয়েছে। রাস্তার পাশে এমন ভাবে হারিয়ে থাকার পরেই এই রাস্তার নাম দেওয়া হয়েছে রোড অফ বোনস।

এখানে যারা বন্দি অবস্থায় থাকতো তারা দারুন কঠিন অবস্থার মধ্যে দিয়ে দিন কাটাতো। শোনা যায় এই রাস্তাটা নাকি তৈরি করা হয়েছে হাজার বন্দির হাড় রক্ত এমনকি জীবনের বিনিময়ে। শোনা যায় ১৯৩২সালে এই রাস্তার কাজ শুরু হয়েছে। যেখানে কিনা তাদের এই রাস্তা তৈরীর কাজে লাগানো হতো, এমনকি মৃত্যুর হলে চাপা পরে থাকত সেখানেই। যার পর থেকেই এই শহরের নাম হয়ে গেছে রোড অফ বোনস।