জলদাপাড়ায় উদ্ধার গন্ডারের মৃতদেহ, শৃঙ্গ নিয়ে চম্পট দিলো চোরাশিকারীরা

ফের গন্ডারের শিং এর লোভে চোরাশিকারিরা জলদাপাড়া অভয়ারণ্যে ঢুকে একটি পূর্ণবয়স্ক গন্ডারকে হত্যা করলো। ঘটনাটি প্রথম নজরে আসে বনকর্মীদের। জলদাপাড়া অভয়ারণ্যের চিলাপাতা রেঞ্জে গভীর জঙ্গলে টহল দেওয়ার সময় বন কর্মীদের নজর পড়ে ওই মৃত গন্ডারটির উপর। বনকর্মীরা জানাচ্ছেন, নৃশংসভাবে খুন করে তারপর মৃত গন্ডারের খড়্গও কেটে নিয়ে গিয়েছে ‌ দুষ্কৃতীরা।

রবিবার সকালে জলদাপাড়া অভয়ারণ্যের ভেতর চিলাপাতার জঙ্গলে টহল দেওয়ার সময় বনকর্মীরা দেখেন একটি খড়্গ বিহীন স্ত্রী গন্ডারের মৃতদেহ পড়ে রয়েছে জঙ্গলে। মৃতদেহটি দেখে তারা নিশ্চিত হন যে তাকে খুন করে তার খড়্গ কেটে নিয়ে চম্পট দিয়েছে দুষ্কৃতীরা। বনকর্মীদের দাবি, এর পেছনে চোরা শিকারিদের হাত রয়েছে।

জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানের ডিএফও দীপক এম জানালেন, রবিবার গভীর রাতে বনকর্মীদের নজর এড়িয়ে চোরাশিকারি একটি স্ত্রী গন্ডারকে হত্যা করেছে। এরপর মৃত গন্ডারের শরীর থেকে খড়্গ কেটে নিয়েছে দুষ্কৃতীরা। ঘটনার তদন্তে চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, বন্যপ্রাণীদের উপর চোরা শিকারিদের এমন আক্রমণের খবর প্রায়শই প্রকাশ্যে আসছে। ইতিপূর্বে গত ৯ই জানুয়ারিও জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানে একটি গণ্ডারের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। সেবার অবশ্য বনদপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, সঙ্গিনী দখলের লড়াইয়ে নেমেই মৃত্যু হয়েছে এক গন্ডারের।