দেশি “ডিজিটাল কারেন্সি” নিয়ে আসছে রিজার্ভ ব্যাংক, জেনে নিন খুঁটিনাটি

বর্তমানে অনলাইন লেনদেনের পরিমাণ অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে দেশে, এই ভার্চুয়াল দুনিয়ায় অর্থের লেনদেন আজ এতটাই সহজ হয়ে উঠেছে যা বলার মত নয়। কিন্তু তাহলে কি ভার্চুয়াল মুদ্রাও রয়েছে?বর্তমান সময়ে এই ভার্চুয়াল মুদ্রা তরফ থেকেই বিটকয়েন এর জনপ্রিয়তা অনেকটাই শীর্ষে উঠেছে, কিন্তু এই ক্রিপ্টোকারেন্সির বিরুদ্ধে ভারত সরকার। ইতিমধ্যেই এই ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে বিরোধিতা করেছে রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস।তিনি এই বিটকয়েন এর পরিবর্তে বাজারে ডিজিটাল কারেন্সি আনার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন।

ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কাজকর্ম করে চলেছে, মোটকথা এই ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে একেবারেই নতুন হবে ডিজিটাল কারেন্সি, যা কিনা ভারতকে বিশ্বের দরবারে এক নতুন স্থান দখল করতে সাহায্য করবে। মোটকথা বিশ্বের দরবারে ভারতও যে ডিজিটালের দিক থেকে পিছিয়ে থাকতে চায় না এটাই তার প্রমান। সম্প্রতি জানা গেছে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এর তরফ থেকে, তিনি জানিয়েছেন এই ক্রিপ্টোকারেন্সি সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে সরকার একটি আন্ত মন্ত্র গঠন করেছে।

এই নিয়ে কেন্দ্রীয় অর্থ নৈতিক সচিবের নেতৃত্বাধীনে যে খবর সামনে এসেছে, সেখানে তারা কেবলমাত্র ডিজিটাল কারেন্সি ছাড়া ক্রিপ্টোকারেন্সি ঘোর বিরোধিতা করেছেন। আর সেই কথা মাথায় রেখেই ইতিমধ্যে ডিজিটাল কারেন্সি তৈরি তৎপরতা শুরু করে দিয়েছে ভারত সরকার। জানা গিয়েছে দ্য ক্রিপ্টো কারেন্সি অ্যান্ড রেগুলেশন অফ অফিশিয়াল ডিজিটাল কারেন্সি বিল , নতুন বিল আনা হবে। সেখানে উল্লেখ করা থাকবে বিটকয়েনের মতন বেসরকারি ক্রিপ্টোকারেন্সি গুলোকে নিষিদ্ধ করার।