গোপন ছিলো প্রেমিকের আসল পরিচয়, জানতেই শুরু অত্যাচার, যুবতীর আত্মহত্যায় “লাভ জেহাদ”-র গন্ধ

পরিচয় গোপন করে এক যুবতীকে প্রেমের জালে ফাঁসিয়েছিলেন এক যুবক। কিন্তু কিছু সময় পরেই প্রেমিকা জানতে পারে প্রেমিক এর আসল পরিচয়। ভূপালের টিটি নগরের এই যুবতী প্রেমিকের আসল পরিচয় জানতে পারার পরেই এক বড় মাশুল গুনতে হলো তাকে। গত কয়েক মাস থেকেই লাভ জিহাদ নিয়ে অনেক কয়েকটি বড় ধরনের খবর প্রকাশ্যে এসেছে। সম্প্রতি আইন পাস হয়েছে লাভ জিহাদের। কিন্তু তাও জানো এইসবের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেনা দেশের মেয়েরা।

ভূপালের এই যুবতী লাভ জ্বিহাদের কবলে পড়েছিল বলে পরিবারের দাবি, যে কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হয়েছে তাকে। সুইসাইডনোটে প্রেমিকের নাম উল্লেখ করে গেছে সে, আর সেখান থেকেই যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে যার পরেই তদন্ত চালিয়েছে পুলিশ। আদিল খান নামক এই মুসলিম যুবক যুবতীকে প্রেমের জালে ফাঁসিয়েছিল, কিন্তু তার আসল নাম লুকিয়ে ছিল তার কাছ থেকে। গোপালের সেই যুবতীর কাছে নিজের পরিচয় দিয়েছিল বাবলু নামে। কোনভাবেই যুবতীকে জানতে দেয়নি তার আসল পরিচয়।

কিন্তু সত্যি কোনদিন চাপা থাকে না, যখন আসল সত্যি জানতে পারে তার পর থেকেই দুজনের মধ্যে সমস্যার সৃষ্টি হয়। যুবতীর পরিবার অভিযোগ করেছে, আসল পরিচয় জানতে পেরে যুবতী সেই যুবকের কাছ থেকে সরে আসতে চেয়েছিল, কিন্তু সেই যুবকের তরফ থেকে বিভিন্ন ভাবে ক্রমাগত চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছিল। মানসিক শারীরিক দিক থেকে।দিনের পর দিন এই ধরনের অত্যাচার আরো বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছিল এমনকি হুমকি পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত কোনো উপায় না দেখে যুবতী আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছিল। এমনটাই দাবি যুবতীর পরিবারের।