সবাইকে ছে’ড়ে চ’লে গেলেন রাণীমা, যাওয়ার আ’গে একটু সেলফি তু’লে নি’লে’ন, ভাইরাল ছবি

আমরা জানি ঐতিহাসিক’ কাহিনীতে রাণীমার অন্তর্ধান এই সময়েই হয়েছিল, তারই অনুসরণে সিরিয়ালেও করুণাময়ী রানী রাসমণির অন্তিমখন এসে উপস্থিত। কারণ তিনি মা ভবতারিণীর থেকে স্বপ্নাদেশ পেয়েছিলেন যে তাঁর অন্তিম সময় আগত, তারপর থেকে রাণীমা নিজেকে প্রস্তুত করেছেন মা ভবতারিণীর পায়ের সমর্পণ করার জন্য। রানীমার চরিত্রে তরুণী দিতিপ্রিয়া রায় তাঁর অনবদ্য শৈল্পিক সত্তা ফুটিয়ে তুলেছেন, যা যথেষ্ট প্রশংসার যোগ্য কারণ এত অল্প বয়সে এরকম একজন মহীয়সী নারীর চরিত্রে অভিনয় করা কখনোই সহজ নয়। যথেষ্ট গুণী অভিনেতার পরিচয় এটি।

দিতিপ্রিয়া খুব ছোট বয়স থেকেই অভিনয়কে নিজের পেশা করে নিয়েছিলেন, আর তাই অনেক অল্প বয়সেই তাঁর এই এত বড় কাজের সুযোগ আসে তাঁর জীবনে। আপামর বাঙালির মা কাকিমারাও তাঁকে যথেষ্ট প্রাণভরে আশীর্বাদও করেছেন। রানী রাসমনির ছোট বয়সের ভূমিকায় অভিনয় করতে আসা দিতিপ্রিয়া মাত্র তিন মাস অভিনয় করার কথা ছিল তাঁর। তিন মাস থেকে আজকে চার বছরের পদযাত্রা যেটা অনেক স্মৃতি ও অভিজ্ঞতাসম্পন্ন হয়ে উঠলো তাঁর জীবনে। তাই এদিন আমরা সিরিয়ালে দেখতে পেলাম রাণীমার অন্তর্জলী যাত্রা, এরপর আর আমরা চাইলেও দিতিপ্রিয়া কে রানী রাসমণি চরিত্র দেখতে পাবো না।

Rani Rashmoni Last Episode Ditipriya Roy

তবে শেষ দিনটিকেও রানী মা স্মরণীয় করে রাখার জন্য বহু ছবি তুলেছেন, সেই সমস্ত ছবি মুহূর্তে ভাইরালও হয়েছে। কারণ ইতিমধ্যেই রাণীমার ভক্ত সংখ্যাও লক্ষাধিক ছাড়িয়েছে। ছবিটিতে দেখা গেছে রামকৃষ্ণ দেবের চরিত্রে অভিনয় করা সৌরভ দাসকে, অন্তিম শয্যায় রানীমাকে ও তার বৌমারাও উপস্থিত এবং আরো অনেকে কলাকুশলীরা ও। সেই ছবি সোশ্যাল সাইটে শেয়ার করা হয়েছে দিতিপ্রিয়ার ফ্যান ক্লাবের পক্ষ থেকে। সেই ছবিতে সবার মুখে শেষ হাসিটুকু লেগে থাকলেও, দিতিপ্রিয়া কে তাঁরা খুবই মিস করবেন বলে জানিয়েছেন। যথেষ্টই মন খারাপ তাঁদের এবং আমাদেরও যথেষ্টই মন খারাপ, আমরা আশায় থাকবো খুব তাড়াতাড়ি তাঁকে আবারো নতুন কোন রূপে, নতুন ভাবে ফিরে পাবো।