পুরীর মন্দিরে ঢোকার জন্য এলো নতুন নিয়ম, ২১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে নতুন সিদ্ধান্ত

এতদিন পুরীর জগন্নাথ দেবের মন্দিরে প্রবেশের জন্য দর্শনার্থীদের কোভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট প্রদর্শন করতে হতো। তবেই মন্দিরে প্রবেশের অনুমতি মিলতো। তবে আগামী ২১শে জানুয়ারি থেকে আর মন্দির কর্তৃপক্ষকে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট প্রদর্শন করা বাধ্যতামূলক থাকছে না। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগামী ১৬ই জানুয়ারি থেকে দেশজুড়ে গণহারে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হচ্ছে।

শ্রী জগন্নাথ মন্দিরের প্রধান কৃষ্ণ কুমার জানিয়েছেন, পুরীর শ্রী জগন্নাথ দেবের মন্দিরে প্রবেশের জন্য সাধারণ মানুষের প্রতি যে নিয়ম জারি করা হয়েছিল তাতে শিথিলতা আনা হয়েছে। ২১শে জানুয়ারি থেকে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট না থাকলেও ভক্তরা মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন। ২১শে জানুয়ারি থেকে ২১শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত একমাসব্যাপী এই সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকছে। তিনি এও জানিয়েছেন, পুরীর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট-কালেক্টর সিদ্ধার্থ ভার্মা এবং পুলিশ সুপার কে বি সিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনাকালে লকডাউন পর্বে মন্দিরে ভিড় এড়াতে বিগত প্রায় নয় মাস ধরে ভক্তদের মন্দিরে প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারী রাখার পর অবশেষে গত ৩রা জানুয়ারি থেকে এই মন্দিরটি সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়। তবে করোনার জন্য প্রাথমিকভাবে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট প্রদর্শন করে তবেই মন্দিরে প্রবেশের অনুমতি পেয়েছেন ভক্তরা। এর কিছুদিন পরেই সেই নিয়মে শিথিলতা আনা হলো।

উড়িষ্যার পুরীর শ্রী জগন্নাথ দেবের মন্দির হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বিশেষত কৃষ্ণ এবং বিষ্ণু উপাসকদের কাছে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং পবিত্র তীর্থক্ষেত্র। করোনা টিকা ব্যবহারের অনুমোদন মিলতেই সেই তীর্থক্ষেত্রের দরজা সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হলো। মন্দির কর্তৃপক্ষের এহেন সিদ্ধান্তে স্বভাবতই খুশি ভক্তরা।