‘মুখ্যমন্ত্রীর জন্যই এত দুর্দশা রাজ্যের মুসলিমদের’, মমতাকে কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

গতকাল বৃহস্পতিবার দক্ষিণ 24 পরগনার মগরাহাট পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রে ধামুরায় সভা করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর সেখানে দাঁড়িয়ে এই মমতা ব্যানার্জিকে ফের কটাক্ষ করেন তিনি। তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে উদ্দেশ্য করে বলেন, বিজেপি শাসিত সমস্ত রাজ্যের মুসলিমদের উন্নয়ন হয়েছে। এই রাজ্যের মুসলিমদের কেবলমাত্র ভোটার করে রেখে দেওয়া হয়েছে। আমরা নাকি জাতপাতের রাজনীতি করি, আসলে এমন রাজনীতি কে করে সেটা মানুষই বলবে। সমস্ত কথা শেষে তিনি জানিয়েছেন আগামী একুশে বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় সরকার গঠন করবে বিজেপি সরকার।

তবে দিলীপ ঘোষ শুধু মাত্র শাসক দলকে নয় সাথে কংগ্রেস ও সিপিএম কেও নিশানা করেছেন। তিনি বলেন, এই রাজ্যের সমস্ত সরকার আপনাদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। প্রতিশ্রুতি দিয়েও তা পূরণ করেননি তারা। যদি দেখা যায় মুসলিমদের মধ্যে বেশি অপরাধের প্রবণতা, কারণ তাদের মধ্যে নেই কাজ নেই কোনো চাকরি। তাই বলছি আমাদের একবার সুযোগ দিয়ে দেখুন। মনে রাখবেন ভারতবর্ষে একজন হিন্দুর যা অধিকার এক মুসলিমেওর সেই সমান অধিকার রয়েছে।

এখানেই শেষ নয় তিনি এই সংখ্যালঘু দের উদ্দেশ্যে আরো বলেছেন, একটু লক্ষ করলেই দেখবেন বিজেপি শাসিত রাজ্যে সমস্ত মুসলিম সুখে-শান্তিতে রয়েছে। তারা চাকরি করছে, সঠিকভাবে উপার্জন করছে। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা এবং গণতান্ত্রিক অধিকার নিয়োগ প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। বিজেপি ক্ষমতায় আসলে রাজ্যের থেকেই সমস্ত কুকীর্তি দূর হবে।

শেষের দিকে দিলীপ ঘোষ আব্বাস সিদ্দিকীর নতুন দল গঠন নিয়েও কথা বলেছেন। ওয়েসি পশ্চিমবঙ্গে যে দল গঠন করছে। তা দেখিয়ে দিদির হার্টবিট বেড়ে গেছে, কেন তার কি কোন অধিকার নেই? সংখ্যালঘুদের ভোট কি দিদির একমাত্র অধিকার?