জাল ভ্যা’ক’সি’ন কা’ণ্ডে নাম জড়িয়েছে পুরসভার! তবুও বিভাগীয় ত’দ’ন্তে’র প’ক্ষে সা’য় নেই ফিরহাদের

জাল ভ্যাক্সিনেশন কেন্দ্র, জাল আইএএস অফিসার, জাল টিকাকরণ কাণ্ড নিয়ে রাজ্য রাজনীতির অস্বস্তি ক্রমশ বাড়ছে। কলকাতা পুলিশের জালে ইতিমধ্যেই ধরা পড়েছেন জাল ভ্যাক্সিনেশন কাণ্ডের কর্ণধার দেবাঞ্জন দেব এবং তার তিন সহকর্মী। কলকাতা পুলিশের সন্দেহ, এত বড় একটি চক্র কখনো একা দেবাঞ্জনের পক্ষে চালনা করা সম্ভব নয়। এর সঙ্গে পুরসভার কোন যোগাযোগ রয়েছে কিনা তার তদন্ত চালাচ্ছিল পুলিশ।

স্বভাবতই এই কান্ডকে কেন্দ্র করে কলকাতা পুরসভার নাম জড়িয়ে গিয়েছে। কলকাতা পুরসভার জয়েন্ট মিউনিসিপাল কমিশনারের আই কার্ড ব্যবহার করেই এত বড় ষড়যন্ত্র করেছিল দেবাঞ্জন। এই চক্র বর্তমানে সাধারণ মানুষের আতঙ্ক বৃদ্ধি করেছে। করোনার কারণে এমনিতেই আতঙ্কিত ছিলেন মানুষ। তারমধ্যে জাল ভ্যাক্সিনেশনকে কেন্দ্র করে মানুষের আতঙ্ক আরো বেড়েছে।

এদিকে আবার কলকাতা পুরসভার নাম জড়িয়ে যাওয়ার পরেও বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিতে রাজি নন বর্তমান পরিবহন মন্ত্রী তথা পুর প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। তার দাবি, দেবাঞ্জন পৌরসভার কর্মী ছিলেন না। পুরসভা এই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত নয়। তাই পুরসভাতে তদন্ত হতে দিতে চান না তিনি। তবে ফিরহাদ হাকিমের বক্তব্য, বর্তমানে পুলিশ তদন্ত চালাচ্ছে। পুরসভার কোনো সদস্য এমন কাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকলে তদন্তে নিশ্চয়ই তা উঠে আসবে।