একদম জঘন্যতম কাজ, সাপের মুখে বেঁধে দেওয়া হলো ক’ন’ড’ম, ব্যাপক উত্তেজনা মুম্বইতে

সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রতিদিনই বিশ্বের বিভিন্ন খবর ভাইরাল হচ্ছে।এখন যে খবরটি ভাইরাল হয়েছে সেই খবরটি দেখে নেটিজেনরা তীব্র নিন্দা করেছে। আর পশু প্রেমিরা তো ঘৃণ্য মতবাদ আরোপ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ের পূর্ব কান্দিভালি এলাকার গ্রিন মিডোজ হাউজিং সোসাইটিতে।

গত ২রা জানুয়ারি ওই হাউজিং সোসাইটির বৈশালী তনহা নামের এক বাসিন্দা এলাকার মধ্যে একটি সাপকে পাগোলের মতো আচরণ করতে দেখেন। সে বার বার মাথা ঠুকছিল মাটিতে, এখান থেকে ওখানে আছাড়ি-পিছাড়ি খাচ্ছিল! ওই মহিলার চোখে ঘটনাটা অস্বাভাবিক ঠেকে! অবশেষে তিনি এক সাপুড়েকে খবর পাঠান সাপটিকে উদ্ধার করার জন্য।

মিতা মালবানকর নামের ওই সাপুরে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন এর আগেও তিনি এই ধরনের সাপ দেখেছেন কিন্তু তারা কখনোই এইরকম উন্মাদের মতো আচরণ করেনি । ২.৫ মিটার দীর্ঘ এই বিষধর সাপটিকে উদ্ধার করার পর তিনি দেখেন সাপের মুখে লাগানো রয়েছে একটা ব্যবহার করা কন্ডোম! এই কনডমের জন্য সাপটি ভালোভাবে নিঃশ্বাস নিতে পারছিলো না। তাই সে ওই ধরনের আচরণ করছিল।

এর পাশাপাশি মিতা আরো জানিয়েছেন- যে ব্যক্তি এই কুকর্মটি করেছেন, তিনি সাপ ধরায় যথেষ্টই দক্ষ! না হলে সাপের বিষদাঁতকে এড়িয়ে এই কাজ করা কোনো ভাবে সম্ভব নয়! এর পর সাপটিকে মুম্বইয়ের বোরিভালির সঞ্জয় গান্ধী ন্যাশনাল পার্কে নিয়ে গিয়ে পশুচিকিৎসক দিয়ে তাকে পরীক্ষা করানো হয়। সেখান থেকে জানা যায় যে সাপটি নির্জীব হয়ে পড়লেও শারীরিক ভাবে তার কোনও আঘাত লাগেনি। সুস্থ হওয়ার পর তাকে জঙ্গলে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনাটি কে ঘটিয়েছে তা তল্লাশি চালানোর জন্য পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।