বিয়ে করতে মন চাইছে না, এদিকে চলছে জোর প্রস্তুতি, এখন কি করা উচিত আপনার!

মেয়েদের অথবা ছেলেদের এমন একটা সময় আসে যখন বাড়ি থেকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে। একটা বয়স পেরিয়ে যাবার পর বাড়ির লোকেরা বিয়ে দেবার জন্য মানসিকভাবে চাপ দিতে থাকে পরিবারের সন্তানদের। তবে বর্তমান সমাজে নিজের স্বাধীনতাকে অনেক বেশি গুরুত্ব দিতে চায় ছেলে মেয়েরা। তাই বিয়ে করার সিদ্ধান্ত তারা নিতে চায় একেবারে স্বাধীনভাবে। বর্তমানে বাবা-মায়েরাও বিয়ের দিকে বেশি জোর দিতে চায় না ছেলে মেয়েকে। এছাড়াও বেশির ভাগ ছেলে মেয়ে বর্তমানে প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ থাকার কারণে স্বাবলম্বী হবার পরেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিতে চায়।

কিন্তু আপনার যদি মন সায় না দেয় তাহলে বিয়ের সিদ্ধান্ত একেবারেই রাজি হবেন না।তবে এক্ষেত্রে বাড়ির সকলের সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ার হাত থেকে বাঁচার জন্য আপনাকে বলে দেবো কয়েকটি টিপস। এই পদক্ষেপ গুলি যদি আপনি নিতে পারেন তাহলে আপনার সঙ্গে আপনার বাড়ির লোকের মনোমালিন্য হবে না।

আপনি জীবন থেকে কি চান সেটি আগে চিন্তা করে দেখুন। অনেক সময় বিয়ের কিছুদিন আগেও মনের মধ্যে দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে থাকেন অনেকেই।বিয়ের সবকিছু প্রস্তুতি হয়ে গেলেও ও মন থেকে ব্যাপারটা মেনে নিতে পারেন না আপনি।এরকম অবস্থায় আগে হবু বরের সঙ্গে সোজাসোজি কথা বলুন।

সারা জীবনের দায়িত্ব নেবার আগে কোন প্রশ্ন অথবা কথা লুকিয়ে রাখবে না নিজের মধ্যে। বিয়ে করার আগে সমস্ত কথা পরিবারের সঙ্গে খোলাখুলিভাবে বলুন। আপনি কি ভাবে এগোতে চান তারা জানান তাদের। কথা বললে অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। আপনি যদি পছন্দের ছেলেকে বিয়ে করেন তাহলে তার সম্পর্কে আপনার নিশ্চয়ই একটি ধারণা থাকে আগে থেকে। তাই বিয়ে করার আগে আপনি তার সঙ্গে সমস্ত বিষয় নিয়ে খোলাখুলি কথা বলুন। যদি বিয়ে না করতে চান তাহলে তার কাছে সে কথা বলুন। সময় চেয়ে নিন তবে তাকে ছোট করবেন না।

বাড়ির লোকের সাথে যদি আপনার অমর থাকে তাহলে সেই সিদ্ধান্ত নিন যাতে আপনি খুশি থাকবেন মনে করেন। জীবনটা যখন আপনার সিদ্ধান্তটাও আপনাকেই নিতে হবে যথাযথ।