মাঘী পূর্ণিমার ভরা কোটালে নদীবাঁধ ভাঙলো সুন্দরবনের, গ্রামের পর গ্রাম জলমগ্ন

মাঘী পূর্ণিমার রাতে ভরা কোটালে জোয়ারের প্রবল জলোচ্ছাসে ভেসে গেল দক্ষিণ 24 পরগনা জেলার সুন্দরবনের গোসাবা ব্লকের সোনাগাঁও এলাকার একটি নদী বাঁধ। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার রাতে। স্থানীয় সূত্রে খবর, সুন্দরবনের বিদ্যাধরী নদী বাঁধের প্রায় ৫০-৬০ ফুট জায়গা ভেঙে গিয়েছে। যে কারণে এলাকার প্রায় বিস্তীর্ণ অঞ্চল পুরোপুরি সমুদ্রের নোনা জলে নিমজ্জিত হয়ে গিয়েছে।

নদী বাঁধ ভেঙে যাওয়ার জন্য সম্পূর্ণ এলাকাতেই নোনা জল ঢুকে পড়েছে। নোনাজল প্রবেশ করার কারণে বিস্তীর্ণ চাষের জমি সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গিয়েছে বলেই জানাচ্ছেন কৃষকরা। নষ্ট হয়ে গিয়েছে আলুর ক্ষেত। এমন বিপদের খবর পেয়ে ব্লক প্রশাসনের তরফ থেকে অবশ্য ইতিমধ্যেই নদীবাঁধ সারাই করার কাজ শুরু করে দেওয়া হয়েছে। আপাতত যুদ্ধকালীন গতিতে চলছে বাঁধ সারাইয়ের কাজ।

গোসাবা ব্লকের বিদায়ী তৃণমূল বিধায়ক জয়ন্ত নস্কর জানিয়েছেন, ভরা কোটালের প্রবল জলোচ্ছাসের চাপে নদী বাঁধ ভেঙে গিয়েছে। যার ফলে গোসাবা ব্লকের বহু চাষের জমি নষ্ট হয়েছে। অনেক ফসল নষ্ট হয়েছে। পুকুর ভেসে গিয়েছে। মাছ চাষেরও প্রভূত ক্ষতি হয়েছে। আপাতত প্রশাসনের তরফ থেকে তড়িঘড়ি বাদ মেরামতির কাজ শুরু করে দেওয়া হয়েছে।

একই কথা জানিয়েছেন গোসাবা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান বিকাশ নস্কর। তিনি জানিয়েছেন, রবিবার রাতে জলের অতিরিক্ত চাপ সহ্য করতে না পেরে প্রায় ৬০ ফুট নদী বাঁধ ভেঙে গিয়েছে। আপাতত বাঁধ মেরামতের কাজ চলছে। গোসাবার বিডিও সৌরভ মিত্র জানিয়েছেন, চাষের জমির, ফসল, পুকুর নষ্ট হলেও ওই এলাকার কোনো বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি।