বন্ধুত্বে ভাটা, চীনের বিরুদ্ধে পথে নামলো নেপাল, চাপের মুখে জিংপিং

আর না অনেক হয়েছে, কারণ এবার চিনের এই দাদাগিরি কোনোভাবেই মেনে নেওয় হবেনা। ভারতের প্রতিবেশী দেশ নেপালে এমন সব কথাই মুখে মুখে ঘুরছে। অভিযোগ নেপালের সীমানা অতিক্রম করে চিন বেআইনি ভাবে বিল্ডিং তৈরি করছে, আর এটা যে কোনোভাবেই মেনে নেওয়া হবে না সেটা বুঝিয়ে দিয়েছে বাসিন্দারা। কারণ নেপালের পথে পথে এই স্লোগান, গো ব্যাক চিন। রাস্তায় ব্যানার, যা দেখে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে সত্যি নেপাল এখন চিনের ওপরে দারুন ক্ষুব্ধ।

আজ বুধবার নেপালের পথে নেমেছে অনেক মানুষ, তারা ব্যানার হাতে মুখে একটা কথা নিয়েই প্রতিবাদ করে চলেছে, ব্যাক অফ চায়না।আসলে অনেক দিন থেকেই শোনা যাচ্ছিল হুমলা জেলায় চিন নাকি অবৈধ ভাবে বিল্ডিং তৈরী করছে, কারণ চিন সেই জায়গাকে নিজেদের বলে দাবি করছে।এবার এই ঘটনার প্রতিবাদেই কাঠমান্ডুতে চিনা দূতাবাস ঘেরাও করেছে নেপালের মানুষ। হুমলা জেলার লাপচা এলাকায় চিন অবৈধভাবে শুরু করেছে বিল্ডিং তৈরীর কাজ। যা দেখেই ক্ষুব্ধ নেপালের সাধারণ মানুষ। তারা স্হানীয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন। কিন্তু কাজের কাজ হয় নি কিছুই।

কারণ এমনিতেই নেপালের এই জায়গা দুর্গম, সেখানকার যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটাই খারাপ। তাই ঠিকঠাক গুরুত্ব দেওয়া হয় নি। নেই কোনো সঠিক উপযুক্ত রাস্তা। কিন্তু চিনের তরফ থেকে আছে রাস্তা ও যোগাযোগ মাধ্যম। শোনা গেছে চিনের তরফ থেকে সেখানকার মানুষ দের হুমকি দেওয়া হয়েছে, তারা যাতে সীমান্তের এপারে ওপারে না যায়, আর এটা কানে যেতেই নড়েচড়ে বসে নেপালের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।।