শুকনো লঙ্কার দিন শেষ, এবার সংরক্ষণ করুন কাঁচা লঙ্কার গুঁড়ো, জেনে নিন পদ্ধতি

বর্তমান সমাজে আমরা আর হাতে করে কোন জিনিস গুড়ো করে রান্না করতে পারিনা। কোন কোন সময় হয়তো আমাদের শরীর সঙ্গ দেয় না অথবা অনেক সময় আমাদের হাতে উপযুক্ত সময় থাকে না। তাই বাজারচলতি যে সমস্ত মসলার গুঁড়া পাওয়া যায় আমরা কিনে সংরক্ষণ করে রাখি। আমাদের কাছে নিত্যপ্রয়োজনীয় হলুদের গুঁড়া শুকনো মরিচের গুঁড়ো সব সময় হাতের কাছে থাকে। তবে এর পাশাপাশি যে কাঁচা মরিচের গুঁড়ো হয় তা হয়ত আমরা সকলে জানি না। প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় আরও একটি প্রয়োজনীয় উপাদান হলো কাঁচামরিচ। যেকোনো ধরনের তরকারি অথবা স্যালাড তৈরি করতে আমরা এটি ব্যবহার করে থাকি।

কাঁচা মরিচে থাকে ক্যাপসিসিন নামে একটি উপাদান। এই উপাদানটি শরীরের প্রদাহ এবং বাতের ব্যথা কমিয়ে দেয়।সম্প্রতি আমেরিকার ইনস্টিটিউট অফ ক্যান্সার রিসার্চ জানিয়েছে যে, টাটকা সবুজ কাঁচা মরিচে ক্যাপসেইসিন থাকে, তার ক্যান্সার রোধ করতে সক্ষম।

তাই আজ থেকে শুরু করে দিন কাঁচা মরিচ খাওয়া। শুধুমাত্র রান্নাতে টেস্ট আনে তাই নয়, এর মধ্যে থাকে বহু নানা উপকারী উপাদান। এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি, যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

তাই দাম বেশি হোক অথবা কম, সবসময় বাড়িতে কিনে রাখুন কাঁচা মরিচ গুঁড়ো। কাঁচা মরিচ গুঁড়ো সংরক্ষণের একটি বিশেষ উপায় আছে। প্রথমে কাঁচামরিচ ভালোভাবে ধুয়ে নিন। ধোয়া হয়ে গেলে চার ফালি করে কেটে নিন। এবার এটি রোদে শুকোতে দিন। ভালোভাবে শুকিয়ে গেলে গুঁড়ো করে নিন মিক্সিতে। এরপর একটি এয়ারটাইট কন্টেইনার এ রেখে দিয়ে সারা বছর সংরক্ষণ করুন কাঁচা মরিচ গুঁড়ো।