শাপে বর জুয়াড়ির, করোনার কারণে আইনের ফাঁক গলে জামিন পেলো ক্রিকেট জুয়াড়ি

গোটা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্ক। ক্রমশ বেড়েই চলছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ছে মৃত্যু। করোনা মোকাবিলার জন্য গোটা দেশ জুড়ে ১৭ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। করোনা পরিস্থিতিতে জামিন পেয়ে গেল কুখ্যাত ক্রিকেট জুয়াড়ি। ২০ বছর আগে ফিক্সিংয়ের অভিযোগ উঠেছিল তার উপর। তারপর থেকেই বিচার চলছে তার। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে বিচারের জন্য তাঁকে ব্রিটেন থেকে ভারতে নিয়ে আসা হয়।

কিন্তু তার পরই করোনা ভাইরাসের কবলে পড়ে গোটা দেশ এবং এই সুযোগেই জামিন পেয়ে গেল কুখ্যাত ক্রিকেট জুয়াড়ি সঞ্জীব চাওলা। ভারতে আসার পর বারবার জামিনের জন্য আবেদন করেছিল সে। তবে জামিন মঞ্জুর হচ্ছিল না। শেষে করোনা ভাইরাসের জেরেই জামিন হল তার। ২০০০ সালের ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে তার নাম জড়িয়েছিল। সেই সময়ের দক্ষিণ আফ্রিকার জনপ্রিয় অধিনায়ক হ্যান্সি ক্রনিয়ে স্বীকার করেছিলেন, তিনি বুকিদের প্ররোচনায় পা দিয়ে ম্যাচ ফিক্সিং করেছেন এবং বুকিদের সঙ্গে ক্রোনিয়ের যোগাযোগ করিয়ে দিয়েছিল সঞ্জীব চাওলা।

সঞ্জীব চাওলার বিরুদ্ধে আরও বেশ কয়েকটি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগও রয়েছে। দিল্লি পুলিশ ২০০০ সালের ৭ এপ্রিল ক্রনিয়ের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ দায়ের করেছিল। মাসখানেক পরে তিনি সব কথা স্বীকার করে নেন। সঞ্জীব চাওলার কথা জানান তিনি। বছর দুয়েক পরে এক বিমান দুর্ঘটনায় ক্রোনিয়ে নিহত হন।

তার পর সেই ফিক্সিং কাণ্ডের গতি থমকে যায়। দেশ ছেড়ে ব্রিটেনে পালিয়ে যায় সঞ্জীব। তারপর সঞ্জীবের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে চার্জশিট দায়ের করে দিল্লি পুলিশ। তখন থেকে লন্ডনের আদালতে তাকে ভারতের হাতে প্রত্যর্পণের মামলা চলছিল। শেষপর্যন্ত তাকে দেশে আনতে সফল হয় দিল্লি পুলিস। তবে ৩ মাসের মধ্যেই জামিন পেয়ে গেল সঞ্জীব।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন