কেন্দ্রের কৃষি প্রকল্প চালু হচ্ছে রাজ্যে, অবশেষে অনুমতি দিলেন মমতা

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে অবশেষে রাজ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের “কিষান সম্মান নিধি যোজনা” চালু করার পক্ষে সম্মতি দিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে রাজ্য সরকার চেয়েছিল কেন্দ্রের তরফ থেকে রাজ্যকে এসংক্রান্ত সম্পূর্ণ অর্থ প্রদান করা হোক, রাজ্যই তা কৃষকদের মধ্যে সমানভাবে বন্টন করে দেবে। তবে রাজ্য সরকারের সেই দাবি মানতে নারাজ কেন্দ্র।

বাংলার প্রতিটি কৃষকের একাউন্টে প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি যোজনার আওতায় সরাসরি টাকা পাঠাতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। বিধানসভা নির্বাচন শিয়রে। তাই কেন্দ্রীয় সরকারের “অভিসন্ধি” বুঝেও কেন্দ্রের এই প্রস্তাবই মেনে নিতে বাধ্য হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে একটি সাংবাদিক বৈঠকের আয়োজন করে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, রাজ্যকে টপকে সরাসরি কৃষকদের একাউন্টে টাকা দিতে চাইছে কেন্দ্র। বাংলার কৃষকেরা কেন্দ্রের পোর্টালেই নিজেদের নাম পাঠিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, কেন্দ্র নামের তালিকা যাচাই করে পাঠাতে বলেছে। রাজ্যের কাছে সেই তালিকায় নেই। তাই তিনি কেন্দ্রকেই কৃষকদের নামের তালিকা পাঠাতে বলেছেন। কেন্দ্র নামের তালিকা পাঠালে তিনি তা যাচাই করে পাঠাবেন বলে জানিয়েছেন।

কেন্দ্রের এই প্রকল্পের কথা বলার পাশাপাশি কৃষকদের জন্য রাজ্য সরকারের প্রকল্পের বিষয়টিও উল্লেখ করতে ভোলেননি মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, কেন্দ্রের প্রকল্প অনুযায়ী ২ একর জমির মালিকরাই বছরে ৬ হাজার টাকা পাবেন। এতে কেবল বাংলার ২০ থেকে ২১ লক্ষ কৃষকই উপকৃত হবেন। তবে রাজ্য সরকারের প্রকল্প অনুসারে ১ কাটা জমির মালিকরাও টাকা পান, এতে বাংলার প্রায় ৭০ লক্ষ মানুষ উপকৃত হন।