ধীরে ধীরে এলআইসি’র ২৫ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করবে কেন্দ্র! চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট ঘিরে শোরগোল

সম্প্রতি, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন আকারে ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, দেশের অর্থনৈতিক দুরবস্থা দূর করতে শীঘ্রই এলআইসি শেয়ার বিক্রি করতে চলেছে কেন্দ্র। মঙ্গলবার, একাধিক সংবাদ মাধ্যমের তরফ থেকে প্রকাশিত রিপোর্টে জানা গেল, কেন্দ্রীয় সরকার এলআইসির প্রায় ২৫শতাংশ শেয়ারই বিলগ্নীকরণের মাধ্যমে ধাপে ধাপে বিক্রি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। নাম জানাতে অনিচ্ছুক কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের এক আধিকারিক নাকি এই তথ্য প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য, এলআইসি রাষ্ট্রায়ত্ত সম্পত্তি। রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি বিক্রি করার আগে কেন্দ্রকে একাধিক আইনি বাধা পেরোতে হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এর জন্য সর্বপ্রথমে এলআইসি আইনে পরিবর্তন আনতে হবে। যার জন্য সংসদের অনুমোদন প্রয়োজন। কেন্দ্রের এক আধিকারিকের তরফ থেকে জানা গেল, আইন সংশোধন নিয়ে ইতিমধ্যেই আলোচনা সম্পন্ন করে ফেলেছে মোদি সরকার। এখন শুধু মন্ত্রিসভার অনুমোদন প্রয়োজন।

সূত্রের খবর, বিলগ্নীকরণের মাধ্যমে প্রথম ধাপে এলআইসির শেয়ার বেচে ২০ হাজার কোটি টাকা তোলার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে কেন্দ্রের। বাজারের পরিস্থিতি দেখে প্রথম পর্যায়ের শেয়ার বিক্রি করা হবে বলে জানা গিয়েছে। প্রথম ধাপের কুড়ি হাজার কোটি টাকা আবার কুড়ি কোটি শেয়ারে ভাগ করা হবে। উল্লেখ্য, ২০২৪-২৫ অর্থ বর্ষের মধ্যে ভারতে পাঁচ কোটি ডলারের অর্থনীতি গড়ে তোলা লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছিল মোদি সরকার।

তবে করোনা পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় কেন্দ্রর সেই পরিকল্পনা ব্যাহত হয়েছে। শুধু তাই নয়, বিগত বেশ কয়েক মাস ধরে লকডাউনের জেরে প্রভূত ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে ভারতীয় অর্থনীতি। সারা বিশ্বের মতো ভারতের অর্থনৈতিক গ্রাফও ক্রমশই নিম্নমুখী। ফলে অর্থনৈতিক ঘাটতি পূরণ করার উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রীয় সম্পদ বিলগ্নীকরণের সিদ্ধান্ত নিচ্ছে মোদি সরকার। রাষ্ট্রীয় সম্পদের মধ্যে সবথেকে লাভজনক সংস্থা হলো এলআইসি। তাই এলআইসির বিলগ্নীকরণ করে স্বভাবতই এক বড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কেন্দ্র।