আবার ভূমিকম্পে কেঁ’পে উ’ঠ’লো রাজধানী, আ’ত’ঙ্কে দিল্লীবাসী

গত বছর থেকেই বারবার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠছে রাজধানী দিল্লি। এই বছরেও সেই ধারা অব্যাহত রয়েছে। আজ সকালে তীব্র মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে রাজধানী শহর। যে কারণে আতঙ্ক ছড়িয়েছে সাধারন মানুষের মনে। বিশিষ্ট সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, আজ বেলা ঠিক বারোটা নাগাদ ভূমিকম্প অনুভূত হয় দিল্লির পাঞ্জাবীবাগ এলাকায়। হঠাৎ করেই ভূমিকম্প শুরু হওয়া তে আতঙ্কে বহু মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। আফটার শকের আশঙ্কা এখনো মানুষের মন থেকে দূর হয়নি।

আজকের ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ২.১। স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার বেলা ঠিক ১২টা ২ মিনিট নাগাদ দিল্লির পাঞ্জাবীবাগ এলাকায় ভূমিকম্প শুরু হয়। এদিনের ভূমিকম্পের ফলে হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর অবশ্য এখনও পাওয়া যায়নি। দিল্লিতে আজকের ভূমিকম্পের মাত্রা অত্যন্ত কম হলেও আগামী দিনে ভয়ঙ্কর এবং তীব্র মাত্রার ভূমিকম্পের আশঙ্কা করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

ভারতবর্ষের রাজধানী শহর দিল্লি ইতিপূর্বে বহুবার প্রবল ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে। যে কারণে ভবিষ্যতে বড় ভূমিকম্প এবং তার থেকে ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। ভূতত্ত্ববিদদের মতে, দেশের পাঁচটি ভূমিকম্প প্রবণ এলাকার মধ্যে থেকে রাজধানী শহর দিল্লি চতুর্থ অবস্থানে অবস্থান করছে। ফলে দিল্লির বাসিন্দারা সর্বদা আতঙ্কগ্রস্ত থাকেন। গত বছর থেকে উত্তর ভারত বারংবার হালকা থেকে মাঝারি মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠছে।

ভূতত্ত্ববিদদের আশঙ্কা ছোট ছোট মাত্রার ভূমিকম্প পরবর্তী দিনে বড় বিপর্যয়ের সম্ভাবনার পূর্বাভাস দেয়। একথা জেনে স্থানীয়রা কার্যত আরো বেশি আতঙ্কিত। এদিন ভূপৃষ্ঠ থেকে অন্ততপক্ষে ৭ কিলোমিটার গভীরে ছিল ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল। খোদ দিল্লির বুকেই ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল হওয়াতে আশঙ্কা আরো বাড়ছে।