আইফোনে ল’ক্ষা’ধি’ক টা’কা’র গেম ইনস্টল ক’র’লো ছেলে, গাড়ি বেঁচে টা’কা মে’টা’লো বাবা

অনলাইনে গেম খেলার প্রতি আসক্ত আট থেকে আশি সকলেই। বিশেষত ছোটদের অনলাইন গেম একটু বেশিই আকর্ষণ করে থাকে। আর সেই আকর্ষণের মাশুল গুনতে গিয়ে পকেট থেকে কড়কড়ে ১ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা গচ্ছা দিতে হলো বাবাকে। তাও আবার নিজের গাড়ি বিক্রি করেই অনলাইনে গেম খেলার মাশুল গুনলেন বাবা। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রিটানে, উত্তর ওয়েলসে। ঘটনার কথা জেনে তাজ্জব নেটিজেন।

ব্রিটেনের বাসিন্দা মহম্মদ মুতাজার সাত বছরের ছেলে আশাজ। সে তার বাবার আইফোন ব্যবহার করে রাইজ অব ডার্ক গেম খেলছিল অনলাইনে। গেমের একটি লেভেলে গিয়ে তার পরের লেভেলে যাওয়ার জন্য তাকে কিছু অ্যাপ কিনতে বলা হয়। সাতপাঁচ না ভেবেই আশাজ ওই অ্যাপগুলি কিনে গেম খেলতে শুরু করে দেয়। আর তাতেই ঘটে যায় বিপত্তি। একের পর এক অ্যাপ কিনতে কিনতে বাবার একাউন্ট থেকে ১ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা মুহুর্তের মধ্যেই সাফ করে দেয় সে।

অবশেষে তার বাবার চোখে বিষয়টি ধরা পড়ে এবং তিনি যখন জানতে পারেন তখন তার চক্ষু চড়কগাছ। ইমেইল মারফত লেনদেন সংক্রান্ত বিল ধরিয়ে দেওয়া হয় তাকে। এই টাকা মেটাতে গিয়ে কার্যত তাকে নিজের গাড়ি বিক্রি করে দিতে হয়েছে। অনলাইনে এক একটি গেম অ্যাপ কেনার জন্য ২০৪ টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ধার্য করা হয়েছিল। ছোটদের গেম খেলার ক্ষেত্রে এইভাবে অ্যাপের দাম এত বেশি কেন রাখা হয়েছে? প্রশ্ন তুলেছেন মহম্মদ মুতাজা।

বিষয়টি নিয়ে তিনি অ্যাপেল কর্তৃপক্ষকে জানানো। কর্তৃপক্ষ অবশ্য তাকে ২১ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছে। তবে আইফোন থেকে এই ভাবে টাকা দিয়ে কিছু কেনার জন্য পাসওয়ার্ড প্রয়োজন হয়। সেই পাসওয়ার্ড বছর সাতেকের ওই খুদে জানলো কিভাবে? মহম্মদের অনুমান, পাসওয়ার্ড সম্ভবত কোনো রকমে জেনে গিয়েছিল তার ছেলে। যে পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেই বাবাকে এমন সর্বস্বান্ত করেছে সে।