এপ্রিল মাসের গরম গত ৬ বছরের রেকর্ড ভাঙতে পারে, আগেভাগেই সতর্ক করলো হাওয়া অফিস

শীতকে আমরা ঠিকমতো বিদায় জানানোর আগেই রাজ্যে হানা দিয়েছে গ্রীষ্ম।আগে হ্যাঁ ইতিমধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় গ্রীষ্মের দাপট শুরু হয়ে গেছে।বিশেষ করে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় অস্বস্তিতে সাধারণ মানুষ। বেলা বাড়ার সাথে সাথে গরমের দাপট বাড়তেই থাকে যার কারণে একেবারে নাজেহাল রাজ্যবাসী। এই নিয়ে ইতিমধ্যেই আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে,এপ্রিল মাসের শুরু থেকেই এই ধরনের ব্যবসা আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি যা কিনা আগামীতে আরো বেশি জুলুমে ফেলবে রাজ্যবাসীকে।

ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জায়গার তাপমাত্রা অনেকটাই স্বাভাবিক এর উপরে। গত 10 বছরের আবহাওয়ার তালিকা যদি লক্ষ্য করা যায়, তাহলে দেখা যাবে মে মাস থেকেই গ্রীষ্মের দাবদাহ শুরু হয় রাজ্যে, কিন্তু এবার এপ্রিল মাস থেকেই গ্রীষ্মের দাপট শুরু হয়ে গেছে যার কারণ হিসেবে আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, প্রয়োজনীয় বৃষ্টির অভাব।

যদি কলকাতার দিকে লক্ষ্য করা যায় ইতিমধ্যেই কলকাতা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা 36 ডিগ্রি ঘরে, যা আগামী দিনে আরো বৃদ্ধি পাবে বলে জানিয়েছে তারা। তবে হ্যাঁ এই আবহাওয়ার মধ্যেই ভালো খবর শুনিয়েছে আবহাওয়াবিদরা, কারণ আগামী সপ্তাহের মধ্যেই উপকূলের বিভিন্ন জেলায় হালকা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা 39 ডিগ্রীর ঘরে, সাথে বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ 92% ঘরে।তবে হ্যাঁ দক্ষিণবঙ্গের সাথে উত্তরবঙ্গের অনেকটাই ফারাক রয়েছে আবহাওয়ার।উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বিশেষ করে পাহাড়ে হালকা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে যার ফলে এই উত্তরবঙ্গের তাপমাত্রা অনেকটাই স্বাভাবিকের মধ্যে রয়েছে।