বাংলাদেশের সাথে এই মাসেই শুরু হচ্ছে ভারতের এয়ার বাবেল কর্মসূচি, বিস্তারিত

বাংলাদেশের সাথে এই মাসেই শুরু হচ্ছে ভারতের এয়ার বাবেল কর্মসূচি

করোনা মহামারীর জেরে মার্চ মাস থেকেই আন্তর্জাতিক উড়ান বন্ধ। আনলক পর্বে এবার বাংলাদেশের সঙ্গে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের অনুমতি দেবে ভারত সরকার। চলতি মাসেই ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বিমান পরিষেবা পুনরায় চালু হচ্ছে বলে জানা গেছে। বাংলাদেশের বিদেশ সচিব মাসুদ বিন মোমেন জানালেন, ভারতীয় হাইকমিশনারের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শীঘ্রই বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যে বিমান চলাচল শুরু হবে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার দুপুরের দিকে বাংলাদেশের বিদেশ সচিব মাসুদ বিন মোমেন ভারতের নতুন হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামীর সঙ্গে সৌজন্যমূলক সাক্ষাৎকার করেন। সেখানেই উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে বিমান চলাচল পুনরায় চালু করা প্রসঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। সাক্ষাৎকারের পর সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশের বিদেশ সচিব জানিয়েছেন, ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে এয়ার বাবল নামক একটি বিশেষ উড়ান কর্মসূচি নেওয়া হবে।

এই এয়ার বাবেল কর্মসূচির মাধ্যমে দীর্ঘ প্রায় সাত মাস পরে উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে যাত্রী বিমান পরিবহন কর্মসূচি আবারও চালু করা হতে চলেছে। বাংলাদেশের বিদেশ সচিব আরও জানিয়েছেন, এই সৌজন্য সাক্ষাতকার চলাকালীন ভারতীয় হাইকমিশনারের সঙ্গে অনেকগুলি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ভারতের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে এয়ার বাবল চালু করার পরিকল্পনাটিকে বাস্তবায়িত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, চিকিৎসার প্রয়োজনে এতদিন বাংলাদেশ থেকে একজন অ্যাটেনডেন্ট ভারতে আসার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। বাংলাদেশের বিদেশ সচিব রোগীর অ্যাটেনডেন্টের সংখ্যা বাড়িয়ে দুজন করার অনুমতি চেয়ে ছিলেন। ভারতের তরফ থেকে সেই অনুরোধ গ্রহণ করা হয়েছে। এই সাক্ষাৎকারে তিস্তা চুক্তি নিয়েও উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের বিদেশ সচিব।