টানা উত্তেজনা কাশ্মীর সীমান্তে, গুলির লড়াইয়ে জখম মেজর ও দুই পুলিশকর্মী, নিকেশ ৩ জঙ্গি

ফের উত্তপ্ত উপত্যকা, কারণ জম্মু কাশ্মীরের বারমুল্লায় ফের সেনা জঙ্গীর লড়াই। আর সেই লড়াইয়ে ক্ষতম ৩ জঙ্গী। এই লড়াইয়ে সামিল ছিল ভারতীয় সেনা ও জম্মু কাশ্মীর পুলিশ। আসলে ঘটনাটি ঘটেছে বারমুল্লা জেলার পাট্টানের ইয়াদিপোরায় । সেখানে দুই দলের গোলাগুলির কারণে আহত হয়, দুইজন একজন ভারতীয় সেনার মেজর ও আরেকজন জম্মু কাশ্মীর পুলিশ। সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে, তারা এখন সুস্থ অবস্হায় আছে‌ । তাদের ভর্তি করা হয়েছে ৯২ বেসড হাসপাতালে ভর্তি করি হয়েছে। এদিকে জানা যায় , সেনারা খবর পেয়ে একেবারে দারুণ ভাবে চিরুণী তল্লাশি চালায়, আর তারপরেই জঙ্গীদের আস্তানা পেতেই দুই দলের মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়ে যায়।

আসলে প্রথমে জঙ্গীরা এলোপাথারী গুলি চালাতে থাকে সেনার দলের ওপরে, তারপরেই এই সেনারা তাদের মোক্ষম জবাব দেয়। কিছুদিন আগেই দেখা যায়, লস্কর ই তৈবার জঙ্গীদের গ্রেফতার করে পুলিশ। কাশ্মীরের বুদগ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছিল।আসলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এরাই নাকি বিভিন্ন সীমান্ত থেকে আসা জঙ্গীদের থাকা খাওয়ার ব্যবস্হা করতে সাথে তাদের অস্ত্রের জোগান এরাই দিত।

এই বুদগ্রাম থেকে যে ৪ জন জঙ্গী কে গ্রেফতার করা হয়েছিল তাদের কাছে অনেক কিছু অস্ত্র শস্ত্র পাওয়া গিয়েছিল।তাদের কাছে ছিল ২৪ রাউন্ডের একে -৪৭ এর গুলি সাথে ছিল ৫ টি ডিটোনেটর। এখানেই শেষ না রামপু্র সেক্টর থেকে যে জঙ্গীদের গোপন ডেরা উদ্ধার করা হয়েছিল, সেখান থেকেও উদ্ধার করা হয়েছিল অনেক পরিমাণে সামরিক অস্ত্র,ও সরঞ্জাম। এদিকে বারমুল্লাতে যে জঙ্গী ঘাঁটির গুলো ছিল সেগুলো নাকি অনেক দিন থেকেই তৈরী করা হচ্ছিল, আর সেই খবর জম্মু কাশ্মীর পুলিশ পেয়েছে।