টার্গেট একুশ, পড়ুয়াদের ট্যাবের পর নতুন চমক দিতে প্রস্তুত রাজ্য সরকার, বিরাট সিদ্ধান্ত মমতার

একুশের নির্বাচনী লড়াইয়ের আগে মাস্টার স্ট্রোক হিসেবে রাজ্যের সর্বস্তরের মানুষের জন্য বিশেষ বিশেষ পরিসেবা দিচ্ছে রাজ্য সরকার। ছাত্র-ছাত্রীরাও অবশ্য বাদ যাচ্ছেন না। একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনায় যাতে ব্যাঘাত না ঘটে তার জন্য প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীর নিজস্ব ব্যাংক একাউন্টে ১০ হাজার টাকা করে দিয়েছে রাজ্য। এবার ছাত্র-ছাত্রীদের শরীরচর্চার প্রতিও নজর দিচ্ছে মমতা সরকার।

সরকারি স্কুলের পড়ুয়ারা রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বিনামূল্যে অনেক পরিষেবাই পেয়ে থাকেন। বিনামূল্যে বই-পত্র, খাতা, জুতো, জামা, সাইকেল আরও বিভিন্ন পরিষেবা দেয় রাজ্য সরকার। এবার সেই তালিকার অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে খেলার সরঞ্জাম। রাজ্য সরকারি স্কুলগুলিতে ফুটবল দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভোটের আগেই রাজ্য সরকারের আওতাভুক্ত প্রতিটি স্কুলে ফুটবল বিতরণের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে রাজ্যের সংশোধনাগার গুলিতে যারা বন্দি রয়েছেন তাদের দিয়ে এক লক্ষ ফুটবল তৈরি করানো হয়েছে। সংশোধনাগারের এই সকল সাজাপ্রাপ্তরা গান, আবৃত্তি, অভিনয়ের মতো সৃজনশীল কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকার পাশাপাশি বিভিন্ন হাতের কাজ করে থাকেন। তাদের তৈরি প্রায় পঞ্চাশ হাজার ফুটবল ইতিমধ্যেই খেলার কাজে ব্যবহৃত হয়েছে। বাকি ৫০ হাজার ফুটবল স্কুলগুলিতে বিতরণ করা হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রাজ্যের যুব ও ক্রীড়া দপ্তরের তরফ থেকে বিভিন্ন ক্লাবে প্রতিবছর বিভিন্ন সাহায্য করা হয়ে থাকে। ক্লাবগুলিকে ফুটবল ছাড়াও ক্যারামবোর্ড কেনার জন্য টাকা প্রদান করে সরকার। তবে এবার ফুটবল গুলি ক্লাবে প্রদান না করে সরাসরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই বিতরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।