সেবা করতে করতে নিজে করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় সংক্রমণ ছড়ানোর ভয়ে আত্মঘাতী নার্স

রিপোর্টে করোনা ভাইরাস পজিটিভ এসেছিল এক নার্সের। করোনা আক্রান্তদের সেবা করতে করতে তাঁর শরীরেও বাসা বেঁধেছে এই মারণ ভাইরাস। এই রোগটি ছোঁয়াচে, যাতে আর ৫ জনের সংক্রমণ না হয়, সেজন্য আত্মঘাতী হলেন ওই নার্স। এই ঘটনাটি ঘটেছে ইতালিতে। আত্মঘাতী ওই নার্সের নাম ড্যানিয়েলা ট্রেজি, বয়স ৩৪ বছর। ইটালির লম্বার্ডির এক হাসপাতালেই করোনা আক্রান্তদের সেবা করছিলেন তিনি। কিন্তু যাবতীয় সতর্কতা অবলম্বন করেও এই ছোঁয়াচে রোগকে এড়ানো যায়নি।

সেখান থেকেই তিনি সংক্রামিত হন। দিন কয়েকদিন পর তাঁর শরীরে করোনা সংক্রমণের নানারকম উপসর্গ দেখা দেয়। ইটালির ন্যাশনাল ফেডারেশন অফ নার্সেস-এর তরফে জানানো হয়েছে, সংক্রমণ ছড়াতে পারে এই আশঙ্কায় অত্যন্ত স্ট্রেসের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলেন এবং মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়েই আত্মঘাতীর সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

ইতালিতে বেড়েই চলছে সংক্রমণ। শুরু হয়েছে মৃত্যু মিছিল। ইতালির জনবহুল স্থানগুলোতে যেন শ্মশানের নিস্তব্ধতা। মারণ করোনা ভাইরাসের জুজু সকলকে ঘরবন্দি করে রেখেছে। ইতালিতে মৃত্যুর সংখ্যা ৬ হাজার ছড়িয়ে গিয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, শনিবার এদেশে মৃতের সংখ্যা ক্রমশ যে পরিমাণে বেড়ে চলেছ, তা দেখে চিন্তা ক্রমশ বেড়েই চলছে রাষ্ট্রনেতাদের। এই মারণ ভাইরাসের কাছে হাজারও উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা, নাগরিক পরিষেবা সব কিছুই যেন হার মেনে গিয়েছে।