স্টেশনের ফ্রি Wifi-এ লেখাপড়া, UPSC-তে পাসওয়ার্ড ক’রে হ’য়ে উঠেছেন IAS অফিসার

কথায় বলে না লক্ষ্য আর পরিশ্রম যদি থাকে তাহলে সেই মানুষকে কখনই কোনভাবেই আটকে রাখা সম্ভব হয় না, একদিন না একদিন যত কষ্টই হোক না কেন সমস্ত কষ্টকে পার করে তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে। পরিশ্রম আর মনের ইচ্ছা দরকার সেটাই এবার বুঝিয়ে দিলেন কেরালার মুন্নার এর বাসিন্দা শ্রীনাথ। জীবন যুদ্ধে হেরে যায় নি সে সকল বাধাকে অতিক্রম করে আর একজন সফল আইএএস অফিসার এ পরিণত হয়েছে। একসময় এই মানুষটি রেলস্টেশনে কুলির কাজ করতো এবং সেখানে সাধারণ যাত্রীদের জিনিসপত্র বইতে গিয়ে টাকা উপার্জন করত।

বিশ্বের সবথেকে কঠিন পরীক্ষায় ইউপিএসসি প্রত্যেক বছর গোটা দেশের আনাচে-কানাচে থেকে পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিয়ে থাকেন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় তারাই একমাত্র আইএএস অথবা আইপিএস অফিসার হতে পারে । আজ সমস্ত বাধাকে অতিক্রম করে আইএএস অফিসার হতে পারলেন। শুধুমাত্র যে একসময় তিনি স্টেশনে কুলির কাজ করতেন তা নয় তাদের পারিবারিক আর্থিক অবস্থা এতটাই খারাপ ছিল যে কখনোই তিনি মসৃণ ভাবে তার লক্ষ্যে পৌঁছানোর কথা ভাবতেও পারেনি।

কেরালা এর্নাকুলাম স্টেশনে তিনি কুলির কাজ করতেন এবং সেখানেই তিনি কাজ করতে করতে তার জীবনের জন্য একটি নতুন স্বপ্ন দেখতে শুরু করেন। সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার কথা তিনি ভাবলেও আর্থিক দিক থেকে স্বচ্ছলতা না থাকার জন্য তিনি কোচিং নিতে পারেনি রেল স্টেশনে বসে ফ্রি ওয়াইফাই তিনি তার পড়া চালিয়ে গেছেন। ফ্রি ওয়াইফাই কাজে লাগিয়ে নিজের স্মার্টফোনে থেকেই তিনি পড়াশোনা করতেন এবং অনলাইনে শিক্ষকদের সঙ্গে তিনি আলোচনা করতেন।

এ রকম কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে শ্রীনাথ কেরালা পাবলিক সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষা উত্তীর্ণ হলেও তিনি দেখেছিলেন অন্য স্বপ্ন। ইউপিএসসি পরীক্ষাতে সফলতা অর্জন করা। এই পরীক্ষায় চারবারের চেষ্টায় সে আইএএস অফিসারের পরীক্ষায় সফলতা লাভ করে।