তাঁবুর অন্দরে বসেই ক্লাস করছে খুদে পড়ুয়ারা, ক’রোনা রুখতে অভিনব উদ্যোগ স্কুলের

করোনাকালে শিশুদের শিক্ষা প্রদানের উদ্দেশ্যে এবার এক অভিনব পদক্ষেপ গ্রহণ করলো ইরানের স্কুল কর্তৃপক্ষ। দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকার পর অবশেষে যখন ইরানের স্কুলগুলি খোলা হল, তখন শিশুদের করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচাতে, তাদের প্লাস্টিকের তাঁবুতে মুড়ে রাখা হলো। সম্প্রতি টুইটারে সেই ছবি পোস্ট করেছেন এক ব্যক্তি। ইরান সরকারের এই উদ্যোগের ছবি মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

ফারনাজ ফসিলি নামক এক সাংবাদিকের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা সেই ছবিতে দেখা গেল, ইরানের একটি স্কুলের ক্লাস রুমের মেঝেতে অসংখ্য আলাদা আলাদা প্লাস্টিকের তাঁবুর রাখা হয়েছে। যার মধ্যে বসে রয়েছে শিশু পড়ুয়ারা। প্রত্যেক শিশুর জন্য আলাদা আলাদা প্লাস্টিকের তাঁবুর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এভাবেই সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে, ক্লাস করাচ্ছে ইরানের স্কুল কর্তৃপক্ষ।

তবে, শিশুদের প্লাস্টিকের তাঁবুর মধ্যে রাখা হলেও, তাদের কারোর মুখেই মাস্ক নেই। ফলে স্বভাবতই, নেটিজেনদের একাংশ যেমন ইরানের স্কুল কর্তৃপক্ষের এই উদ্যোগকে সমর্থন করছেন, আবার একাংশ শিশুদের মুখে মাস্ক না থাকায়, স্কুল কর্তৃপক্ষের সমালোচনাও করছেন। তবে প্রায় সাত মাস স্কুল বন্ধ থাকার পর, “নিউ নর্মাল” এ শিক্ষা ব্যবস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার এই উদ্যোগকে অনেকেই স্বাগত জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, করোনার জেরে পৃথিবীর অন্যান্য রাষ্ট্রের মতনই ভারতেও প্রায় ছয় মাস ধরে স্কুল-কলেজ সহ অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রাখা হয়েছে। এর ফলে স্বভাবতই ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন পড়ুয়ারা। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অনলাইন ক্লাসের আয়োজন করা হলেও,স্মার্টফোন এবং অন্যান্য জরুরী পরিষেবার অভাবে অনেকেই সেই ক্লাসে যোগ দিতে পারছেন না। পরীক্ষা ব্যবস্থা নিয়েও চরম দুর্ভোগের সম্মুখীন হচ্ছেন পরীক্ষার্থীরা। ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ এই মুহূর্তে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে।