ফিরে আসছে “শক্তিমান”, ভারতের প্রথম সুপারহিরোকে নিয়ে বানানো হচ্ছে “ট্রিলজি”

যারা ৯০ দশকে জন্মগ্রহণ করেছে, তাদের নিশ্চয়ই গঙ্গাধর, শক্তিমানের মধ্যে পার্থক্য বুঝিয়ে দিতে হবে না। কারণ ভারতের ও সেই সময়কার শিশুদের কাছে প্রথম সুপার হিরো শক্তিমান। সত্যি সেই শক্তিমানের সাথে কতই না নস্টালজিয়া জড়িয়ে আছে। তখন হয়ত নেটফ্লিক্স, আমাজন এইসব কিছুই ছিল না, মাত্র একটাই চ্যানেল ডিডি ন্যাশনাল।আর যেটা পেয়েই খুশি থাকত সবাই।কারণ সেখানেই যে ধরা দিত সুপারহিরো শক্তিমান। একেবারে লাট্টুর মতো ঘুর পাক খেয়ে এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যেতো ও শ্ত্রুদের উচিৎ শিক্ষা দিত।

হয়ত সেই দিন গুলো আর কখনই ফিরে আসবে না, কিন্তু এবার যদি বলা যায় দিন গুলো ফিরে না আসলেও সেই সুপারহিরো যদি ফিরে আসে আবার আমাদের মাঝে তাহলে কেমন লাগবে? আজ্ঞে হ্যা, কথাটা সত্যি। আমাদের শক্তিমান মুকেশ খান্না এই কথা তিনি নিজে জানিয়েছেন। একটি সংবাদ মাধ্যমের দ্বারা তিনি এই কথা জানিয়েছেন, সেখানে তিনি জানান বড় পর্দায় ফের ফিরিয়ে নিয়ে আসা হবে শক্তিমানকে।এই শক্তিমান আসবে তিনটি ভাগে, যাকে বলা হবে ট্রিলজি।

আসলে এই যে শক্তিমান তখনকার সময়ে বাচ্চাদের অনেক কিছু শিক্ষামূলক জিনিস শিখিয়েছে। আর এবার সেই কথা মাথায় রেখেই এই প্রজন্মের কাছে উপহার হিসেবে তুলে ধরতে চাইছে শক্তিমানকে। এখন সব ঠিক থাকলে হয়ত ২০২১ সালে শক্তিমান ট্রিলজির প্রথম ছবি শুটিং শুরু হবে।