আজব, বান্ধবী সন্তানের মা হতেই তার মায়ের সাথে পালালো প্রেমিক

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে কতই না অদ্ভুত ঘটনা নিত্যদিন প্রকাশ্যে আসে। এরকমই একটি অদ্ভুত ঘটনা সম্প্রতি নেটিজেনদের নজরে এসেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রিটেনের গ্লুসেস্টারশায়ারে। স্বামী-কন্যা, সংসার, পরিবার-পরিজনদের ত্যাগ করে মেয়ের প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছেন এক মহিলা। তার মেয়ে আবার সম্প্রতি এক সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে এমন ঘটনা স্বভাবতই তাদের পরিবারকে সম্পূর্ণভাবে ভেঙে দিয়েছে।

বিশিষ্ট ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম “ডেইলি মেইল” এ প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, ২৯ বছর বয়সি যুবক রায়ান শেলটনের সঙ্গে ২৪ বছরের যুবতী জেস অলড্রিজের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিল। জেসের বাড়িতেই দুজনে থাকতে শুরু করেছিলেন। পরিবার সূত্রে খবর, সেই সময়েই জেসের মা জর্জিনা অলড্রিজের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন রায়ান। জর্জিনাকে রায়ানের সঙ্গে একবার অনভিপ্রেত অবস্থায় দেখেও ফেলেছিলেন জেসে।

ঘটনা প্রসঙ্গে জর্জিনার যুক্তি ছিল, এ অতি সাধারণ এবং স্বাভাবিক ঘটনা। এমনটা হতেই পারে বলে মনে করেন তিনি। দু’দিন আগেই হাসপাতালে এক শিশুর জন্ম দিয়েছেন জেসে। হাসপাতালে সন্তানকে দেখতেও গিয়েছিলেন রায়ান। তবে সন্তানকে নিয়ে বাড়ি ফিরে আসতেই তিনি দেখেন তার মা তার প্রেমিকের সঙ্গেই পালিয়ে গিয়েছেন। জর্জিনার এই সিদ্ধান্তে জেসে ভীষন ভেঙে পড়েছেন।

এমনটা যে হতে পারে তা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি জেসের বাবা। জেসের বোন এমা সংবাদমাধ্যমের সামনে জানিয়েছেন, মায়ের এই সিদ্ধান্ত সারা পরিবারকেই যেন ভেঙে দিয়েছে। বিশেষত তাদের বাবা ভীষণ ভেঙে পড়েছেন। জর্জিনা এমন কাজ কিভাবে করতে পারলেন, তা ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছেন না তার পরিবারের সদস্যরা। অবশ্য এই কাজ করে জর্জিনা কিংবা রায়ানের বিন্দুমাত্র অনুশোচনা নেই বলেই জানা গিয়েছে। তারা তাদের নতুন জীবনে বেশ খুশিই রয়েছেন।