কৃষি বিল পাশ হতেই বড়সড় পতন শেয়ার বাজারে, লগ্নিকারীদের ক্ষতি ৪.৫ লক্ষ কোটি টাকা

সংসদে প্রস্তাবিত নতুন কৃষি বিলের সরাসরি প্রভাব পড়লো শেয়ারবাজারে। সোমবার মুম্বাইয়ে শেয়ার সূচক সেনসেক্স ৮১২ পয়েন্ট নামলো। পাশাপাশি, নিফটিতেও ২৫৪ পয়েন্ট পতন হলো। ফলে, ইতিমধ্যেই লগ্নিকারীদের সাড়ে চার লক্ষ কোটি টাকারও বেশি খোয়া গেল। অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, কেন্দ্রের প্রস্তাবিত নতুন কৃষি বিল নিয়ে দেশজুড়ে বিরোধী সাংসদ এবং কৃষকেরা যেভাবে প্রতিবাদ করতে শুরু করেছেন, পাশাপাশি করোনা আবহে এইচএসবিসি ব্যাংক নিয়ে যেভাবে আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে, তার ফলেই এই ব্যাপক পতন ঘটেছে।

উল্লেখ্য, করোনা মহামারীর আবহে বিশ্ব বাজারের পরিস্থিতি অত্যন্ত দুর্বিষহ।পাশাপাশি, ব্রিটেনে আবার নতুন করে লকডাউনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এইচএসবিসি ব্যাংক নিয়োগ সম্প্রতি নানা জল্পনা সূত্রপাত হয়েছে। এই কারণগুলির সম্মিলিত প্রভাব হিসেবে গত সোমবারই শেয়ার বাজারের পতন সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছিলেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তবে তা যে এত ব্যাপক আকার ধারণ করবে, তা অবশ্য আশা করা যায়নি।

শুক্রবার, শেয়ার বাজার বন্ধের সময় সেনসেক্স ছিল ৩৮ হাজার ৮৪৫ পয়েন্ট। এরপর সোমবার যখন বাজার খোলার সময়েই তা ৩৩ পয়েন্ট কমে গিয়েছিল। তবে বাজার বন্ধের সময় রেকর্ড হরে সেনসেক্সের পতন হয়। শেয়ার সূচক ৮১২ পয়েন্ট কমে ৩৮০৩৪ পয়েন্টে গিয়ে দাঁড়ায়। সেনসেক্সের পাশাপাশি নিফটিরও পতন হয়েছে। সোমবার বাজার খোলার সময় শুক্রবারের তুলনায় নিফটি এক পয়েন্ট কমে ১১৫০৩ পয়েন্টে দাঁড়ায়। বাজার বন্ধের সময় তা কমে ১১২৫০ পয়েন্টে গিয়ে থামে।

সেপ্টেম্বর মাসে সেনসেক্স এবং নিফটিতে রেকর্ড ২ শতাংশ হারে পতন হয়েছে। এরমধ্যে নিফটি ফার্মা, মেটাল ও মিডিয়া ৪ শতাংশ ক্ষতির মুখে পড়েছে। নিফটি ব্যাঙ্ক, অটো, এফএমসিজি, রিয়েলটি সেক্টরেও ২ থেকে ৪ শতাংশ পতন হয়েছে। হিন্ডালকো, ইন্ডাসইন্ড ব্যাঙ্ক, টাটা মোটর্স, ভারতী এয়ারটেল, জি এন্টারটেনমেন্ট, জেএসডব্লিউ স্টিল, ভারতী ইনফ্রাটেল, মারুতি সুজুকি, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক, মহিন্দ্রা অ্যান্ড মহিন্দ্রা, ওএনজিসি-র শেয়ার এখন নিফটিতে টপ লুজারের তালিকায় রয়েছে।