এসএসসি: চাকরিপ্রার্থীদের বিক্ষোভ মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে

নির্বাচন আসন্ন। প্রত্যেক রাজনৈতিক দল এই মুহূর্তে দলের হয়ে প্রচার চালাতে এবং নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশে ব্যস্ত। প্রতিটি দলই কর্মসংস্থান প্রসঙ্গে রাজ্যবাসীকে নিজ নিজ প্রতিশ্রুতি দিতেই ব্যস্ত। এসএসসি মারফত শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া এই রাজ্যের কর্মসংস্থান প্রসঙ্গে একটি অত্যন্ত বড় ইস্যু। এসএসসি নিয়ে বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে বেকার যুব সম্প্রদায়ের ক্ষোভ কিছু কম নয়।

বিগত বেশ কয়েক বছর ধরেই এসএসসি প্রসঙ্গে সরকারের বিরুদ্ধে সরব চাকরি প্রার্থীরা। মঙ্গলবার ফের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে অবস্থান বিক্ষোভে সামিল হলেন তাঁরা। বিশিষ্ট সূত্রে খবর, গতবছর সল্টলেকের বিকাশ ভবনের সামনে যারা প্রতিবাদে সামিল হয়েছিলেন, তারাই আজ মুখ্যমন্ত্রী বাড়ির সামনে ধর্নায় বসেন।

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ছবি এবং ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, চাকরি প্রার্থীরা এদিন কালীঘাট মন্দির রোডের উল্টো দিকে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির গলির সামনের মেন রোডে প্ল্যাকার্ড এবং পোস্টার নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। প্ল্যাকার্ড নিয়ে কেউ কেউ আবার রাস্তায় শুয়েও পড়েন। প্রসঙ্গত, মেধা তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও নিয়োগ হচ্ছে না! এই দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই এদিন ফের বিক্ষোভ দেখান চাকরিপ্রার্থীরা।

চাকরিপ্রার্থীদের দাবি, নবম-দশম এবং একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণিতে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ার পর মেধা তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে। তবে সেই মেধা তালিকা অনুযায়ী নিয়োগ হচ্ছে না। রাজ্যের স্কুলগুলিতে শিক্ষকদের অসংখ্য আসন ফাঁকা পড়ে আছে। তবুও বেকার হয়ে রয়েছেন মেধা তালিকাভুক্ত চাকরিপ্রার্থীরা। মুখ্যমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিলেও তা রক্ষা করেননি। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আজ ফের ধর্নায় বসে ছিলেন তারা।