অশ্লীল মেসেজে চোখে জল শ্রাবন্তীর, রেগে গিয়ে যা কান্ড করে বসলেন অভিনেত্রী, পড়ুন গল্প

সাম্প্রতিক ভার্চুয়াল দুনিয়ায় বাড়বাড়ন্তের জন্য বারবার হেনস্থার সম্মুক্ষীন হতে হচ্ছে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। ফেসবুক, টুইটার জগতে অভিনেতা অভিনেত্রীদের সঙ্গে সমানভাবে একটিভ থাকেন তাদের অনুগামী রাও। ভক্তদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য তাদের সঙ্গে বিভিন্ন ছবি শেয়ার করে নেন অভিনেতা অভিনেত্রীরা। পজেটিভ কমেন্ট এর পাশাপাশি বহু নেগেটিভ কমেন্ট এর সম্মুখীন হতে হয় তাদের। চলতি বছরেই বহুবার অভিনেত্রী দের এরকম ভার্চুয়াল হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে।

সম্প্রতি এরকম ভার্চুয়াল শ্লীলতাহানীর শিকার হয়েছেন টলিপাড়ার প্রথম সারির মিষ্টি নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। বেশ অনেকদিন ধরেই একাধিক নম্বর থেকে তার কাছে আসছিল কিছু অশ্লীল মেসেজ। তবে ভারত বর্ষ থেকে নয়, সুদূর বাংলাদেশ থেকে এরকম অশালীন মন্তব্য ভরে যাচ্ছে তার মোবাইল। শেষমেষ আর সহ্য না করতে পেরে বাংলাদেশ হাইকমিশনে অভিযোগ করে বসলেন বাঙালি অভিনেত্রী শ্রাবন্তী।সংবাদমাধ্যমের সামনে শ্রাবন্তী বলেছেন যে,একাধিক নম্বর থেকে বারবার তার কাছে নোংরা ভাষায় মেসেজ আসছে কিছুদিন ধরে।প্রথমে গ্রাহ্য না করলেও এই মেসেজ বহুদিন ধরে আসছে তার ফোনে।

এমনকি ভারত বর্ষ নিয়ে তার সঙ্গে বিভিন্ন কুকথা বলা হচ্ছিল। ব্লক করে দেওয়ার পরেও অন্যান্য নম্বর থেকে একই কাজ চলতে থাকে। শেষমেষ আর নিজেকে ঠিক না রাখতে পেরে বাংলাদেশ হাই কমিশনের অভিযোগ জানিয়েছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। তিনি আরো বলেছেন যে, বাংলাদেশের পরিচিত লোকজন এর মাধ্যমেই এই কাজ করছেন অভিনেত্রী। অন্যায় মুখ বুঝে সহ্য করা আরও এক ধরনের অপরাধ বলে তিনি মনে করেন।কিছুদিনের মধ্যেই বাংলাদেশের একটি ছবিতে দেখা যেতে পারে অভিনেত্রী শ্রাবন্তী কে।তার আগে এরকম অভিজ্ঞতা স্বাভাবিকভাবেই অভিনেত্রীর কাছে যে খুব একটা সুখকর নয় তা বলাই বাহুল্য।