লকডাউনে পড়ুয়াদের খবর নিতে বাড়ি বাড়ি ঘুরছেন পারঙ্গেরপার শিশু কল্যান স্কুলের কতিপয় শিক্ষক, আপ্লুত অভিভাবকরা

কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ রোধে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন ।স্কুল কলেজ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই এখন বন্ধ, কিন্তু পড়াশোনার তো লকডাউন হয় না । আর ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্ক তো আবহমান কালের। একে অপরের সাথে অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত । একে অপরকে বিনা অস্তিত্ববিহীন । অতএব ছাত্র-ছাত্রীদের খোঁজ নিতে বেড়িয়ে পরেন পারঙ্গেরপার শিশু কল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের কতিপয় শিক্ষক । একেবারে পৌঁছেযান কিছু ছাত্র-ছাত্রীদের বাড়ির দোড়গোঁড়ায়, যারা এখনও রাজ্য সরকারের শিক্ষা দপ্তর প্রদত্ত মডেল অ্যাকটিভিটি টাস্ক পায়নি । বলাবাহুল্য প্রচুর ছাত্র-ছাত্রী আছে যাদের অভিভাবকদের দৈনন্দিনের খরচ চালাতে হিমশিম খেতে হয়।

সেখানে স্মার্ট ফোন তো বিলাসিতার নামান্তর । ফলত তাদের বিদ্যালয়ের হোয়াটসআপ গ্রুপে যুক্ত করা যায় নি। যেখানে শিক্ষকরা অনলাইন ক্লাস নিয়ে চলছেন । এই সমস্যার কথা ভেবে ছাত্র-ছাত্রীদের আশ্বস্ত করা হয় বিদ্যালয় খুললে উক্ত বিষয় গুলো পুনরায় আলোচিত হবে এবং বিষয়ভিত্তিক মডেল অ্যাকটিভিটি টাস্ক গুলো তাদের কে বলে দেওয়া হয় । মডেল অ্যাকটিভিটি টাস্ক রচনায় কি কি করণীয় সে বিষয় ধারণা দেওয়া হয় । সঙ্গে পরিবারের খোঁজে নেওয়া হয় ।

সত্যি কথা বলতে, সারা দিন যাদের কে ঘিরে আবর্তিত হয় আমাদের কার্যকলাপ। দীর্ঘ দিন তাদের না দেখে মনে এক শূন্যতা এসেছে , সেখানে দাঁড়িয়ে আজ ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে পৌঁছাতে পেরে বড় আনন্দ অনুভব করেছেন বলে জানান উপস্থিত শিক্ষক শ্রীবাস সরকার, সুশান্ত রায় ও খাদিমুল ইসলাম । বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ডঃ প্রবীর রায় চৌধুরী জানান, “এভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে পৌঁছাবেন তাঁরা, সঙ্গে উপহার স্বরূপ খাতা, কলম ও চকলেট দেওয়া হয় । নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখেই ছাত্র-ছাত্রীদের এই সাক্ষাৎ হয় ।”